চট্টগ্রামের পাঠকপ্রিয় অনলাইন

মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস (ভিডিও)

একাত্তরে বাংলাদেশে থাকা বিভিন্ন বিদেশী সংবাদকর্মী কর্তৃক ধারনকৃত ও সংরক্ষিত দূর্লভ স্থিরচিত্র, ভিডিও ফুটেজ, অডিও রেকর্ডিং; সেসময় আন্তর্জাতিক ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার প্রকাশিত তৎকালীন মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশ, ভারত ও পাকিস্তানের নেতাদের মুক্তিযুদ্ধ কেন্দ্রিক সাক্ষাৎকার ও কর্মকান্ড ইত্যাদির সমন্বয়ে তথ্যবহুল একটি ডকুমেন্টারি “মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস”।

রক্তক্ষয়ী সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার মধ্যদিয়ে দ্বিজাতি তত্ত্বের ভিত্তিতে বিভক্ত স্বাধীন ভারত ও পাকিস্তান গঠনের মাধ্যমে নবাবী শাসনের বিলুপ্তি পরবর্তী ১৯০ বছরের ইংরেজ শাসনের সমাপ্তি ঘটে।

পাকিস্তানী ও বাঙ্গালী দুটি জাতির জাতিগত পরিচয় উপেক্ষা করে শুধুমাত্র ধর্মীয় সাম্প্রদায়িকতার উপর ভিত্তি করে ১১০০ মাইলের ব্যবধান থাকা স্বত্বেও পাকিস্তান নামক একটি একক রাষ্ট্র গঠন যে ভুল সিদ্ধান্ত ছিল তা অচিরেই বুঝতে পারে বাঙ্গালী জাতি। বুঝিয়ে দেয় পাকিস্তানিরা উর্দুকে একমাত্র রাষ্ট্রভাষা হিসাবে চাপিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহন করে।

এরপর পর্যায়ক্রমে বাংলার মানুষ রক্তের দামে কিনে নেয় মাতৃভাষা বাংলা। পাকিস্তানে আসে গভর্নর ও সামরিক শাসন। ১৯৬৫ সালের পাক-ভারত যুদ্ধে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের অরক্ষিত অবস্থা ১৯৬৬ তে উত্থান ঘটায় ‘৬ দফা’ দাবীর, যা ছিল প্রাথমিকভাবে বাংলার মুক্তির সনদ।

এরপরে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে ‘আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা’, শেখ মুজিবুর রহমানের ‘বঙ্গবন্ধু’ উপাধিতে ভূষিত হওয়া, ‘এগার দফা’ দাবী, ‘একুশ দফা’ দাবী, উনসত্তরের গন অভ্যুত্থানে সামরিক শাসক আইয়ুব খানের পদত্যাগ ও ইয়াহিয়ার আগমনের মধ্য দিয়ে এগিয়ে চলে তৎকালীন পাকিস্তানের অস্থিতিশীল রাজনৈতিক পরিমন্ডল।

ইয়াহিয়ার শাসন-শোষন-নির্যাতনে ক্ষুদ্ধ বাঙ্গালী সত্তরের ডিসেম্বরের নির্বাচনে রায় দেয় আওয়ামীলীগ এর পক্ষে। নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্টতা পেলেও ক্ষমতায় যেতে দেয়া হল না বাঙ্গালীদের। এরই মধ্যে ৭ই মার্চের বঙ্গবন্ধুর ভাষন ও ২৫শে মার্চের গনহত্যা ‘অপারেশন সার্চ’ লাইটের মধ্য দিয়ে শুরু হয় বাঙ্গালীর মুক্তির সংগ্রাম। সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাঙ্গালী ছিনিয়ে আনে স্বাধীনতার সূর্য।

মুক্তিযুদ্ধে গনহত্যা, ধর্ষন ও অন্যান্য মানবতাবিরোধী কর্মকান্ডের সাক্ষী হয়ে আছে তৎকালীন বিদেশি সাংবাদিকদের ধারনকৃত স্থির ও ভিডিও চিত্র। সাক্ষী হয়ে আছে দাম্ভিক ইয়াহিয়ার জাতিসঙ্ঘ অধিবেশনে আত্মসমর্পনের কাগজ ছিড়ে বেড়িয়ে আসার ঘটনা থেকে শুরু করে বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্বপক্ষে বিশ্বজনমত সৃষ্টির লক্ষে ইন্দিরা গান্ধীর ঐতিহাসিক বিশ্বভ্রমন পর্যন্ত বহু ঘটনার। এছাড়া সম্মুখ সমরের সাহসী দৃশ্যেরও কিছু চিত্র ও ভিডিও চিত্র রয়ে গেছে আন্তর্জাতিক মিডিয়ার আর্কাইভে।

READ  ভারতীয় ৭ শহীদের স্বজনদের ক্রেস্ট দেবেন প্রধানমন্ত্রী

এধরনের নানা দুর্লভ ও দুস্প্রাপ্য ইমেজ ও ভিডিও ফুটেজ এবং অডিও রেকর্ডিং সংগ্রহ করে এগুলোর সমন্বয়ে ইংরেজ শাসন মুক্তি থেকে শুরু করে ১৯৭১ এর মুক্তিযুদ্ধে চুড়ান্ত বিজয় অর্জন পর্যন্ত সময়ের মধ্যে ঘটে যাওয়া ঘটনাবলী নিয়ে তথ্যবহুল ও খুবই গুরুত্বপূর্ন একটি ডকুমেন্টারি এই “মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস”।

ভিডিও :

মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক ডকুমেন্টারি

মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস

ডঃ মাহফুজুর রহমান

মাল্টিমিডিয়া প্রোডাকশন কোম্পানী লিমিটেড – এটিএন বাংলা

পরিকল্পনা ও পরিচালনাঃ – ডঃ মাহফুজুর রহমান
পান্ডুলিপি ও ধারা বিবরণীঃ – রুমি নোমান ও রাহুল রাহা
দৈঘ্যঃ – ১১০ মিনিট
পরিবেশনাঃ – মাল্টিমিডিয়া প্রোডাকশন কোম্পানী লিমিটেড – এটিএন বাংলা

সূত্র : মুক্তিযুদ্ধ ই-আর্কাইভ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*