চট্টগ্রামের পাঠকপ্রিয় অনলাইন

সাংবাদিক সুলাইমান মেহেদী হাসানের ৩৯ তম জন্মদিন আজ

দেলোয়ার হোসাইনঃ

সুলাইমান মেহেদী হাসান

আজ ১৫ অক্টোবর ২০১৮। সাংবাদিক, সংগঠক সুলাইমান মেহেদী হাসানের ৩৯ তম জন্মদিন। ১৯৭৯ সালের এই দিনে তিনি চট্টগ্রাম জেলার সন্দ্বীপ থানার রহমতপুর গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন।

পিতা আব্দুল বাতেন বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস কর্পোরেশনের বিদ্যুৎ প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। চাচা তামজিদুর রহমান বাংলাদেশ বিমানের উপ-প্রধান প্রকৌশলীর দায়িত্ব শেষে অবসর গ্রহণ করেন। প্র-পিতামহ ছমদ আলী মিয়াজী ও পিতামহ মুন্সি মুহিব উল্লাহ ছিলেন একনিষ্ঠ মুসলিম ও ইসলাম ধর্মের প্রচারক।

মাতা হাফছা খানমের পিতা ডা. জহুরুল আলম খান। পিতামহ সন্দ্বীপের প্রথম চাটার্ড একাউন্টেন্ট আবুল কালাম আজাদ। প্র-পিতামহ মাওলানা ওয়াজিউল্লাহ খান ছিলেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত ইসলামী চিন্তাবিদ।

সৎ ও নিষ্ঠাবান পিতার আদর্শে পথ চলার দীর্ঘ প্রায় এক যুগের সাংবাদিকতা পেশায় পরিচ্ছন্নতার স্বাক্ষর রেখে চলেছেন সুলাইমান মেহেদী হাসান ।সন্দ্বীপের প্রথম রেজিস্ট্রার্ড পত্রিকা সোনালী সন্দ্বীপের মাধ্যমে তার হাতেখড়ি।পরবর্তীতে জাতীয় দৈনিক খবরপত্রের বিশেষ প্রতিনিধি ও পত্রিকাটির চট্টগ্রামের জন্য বিশেষভাবে প্রকাশিত ‘চট্টলাপত্র’ তার হাত ধরে নিয়মিত প্রকাশিত হয়েছে।

এরপর জাতীয় দৈনিক ‘ঢাকা প্রতিদিন’ এর চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধানের দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানে তিনি অর্থিনীতি প্রধান পত্রিকা ‘বিজনেস বাংলাদেশ’ এর চট্টগ্রাম ব্যুরোর দায়িত্বে নিয়োজিত আছেন।

প্রিন্ট পত্রিকার পাশাপাশি ডিজিটাল বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে অনলাইন গণমাধ্যমকে প্রাধান্য দিয়েছেন তিনি।

২০১২ সাল থেকে অনলাইন নিউজ পোর্টাল বিডিটাইমস৭১ এর সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। একই সময় তিনি চট্টগ্রামের প্রথম ও শীর্ষ স্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিটিজি টাইমসের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের খন্ডকালীন দায়িত্ব পালন করেন।

২০১৪ সালে দৈনিক ইনকিলাবের চট্টগ্রামের প্রাক্তন ব্যুরো প্রধান, বর্তমান ডেইলি অবজারভারের চট্টগ্রাম ব্যুরো ও চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি মোস্তাক আহমেদ সম্পাদিত বাংলা এক্সপ্রেস ডটকম’র বার্তা সম্পাদক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

বর্তমানে তিনি সিটিজি বাংলা টুয়েন্টিফোর ডটকম এর প্রকাশক। চট্টগ্রামের শীর্ষ স্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টালের মধ্যে স্থান করে নেয়া এ পত্রিকাটির সম্পাদনায় রয়েছেন প্রবীণ ও সর্বজন শ্রদ্ধেয় সাংবাদিক মাখন লাল সরকার।

READ  মোবাইলে কথা বলতে নিষেধ করায় খুন

এছাড়া তিনি বন্দর নগরী টেলিভিশন (বিএনটিভি) এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োজিত আছেন।

সীতাকুণ্ডের স্থায়ী বাসিন্দা সুলাইমান মেহেদী ‘সাপ্তাহিক সীতাকুণ্ড’ নামে একটি পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদনার দায়িত্বে রয়েছেন।

কেবল সাংবাদিকতাই নয়,সাংবাদিকদের অধিকার আদায়েও সুলাইমান মেহেদী হাসান নিরলস কাজ করে চলেছেন। বিশেষ করে অনলাইন গণমাধ্যমের স্বীকৃতি ও এ মাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকদের যথাযথ মূল্যায়নের দাবিত তিনি সর্বদা সোচ্চার ভূমিকা পালন করে আসছেন।

২০১২ সালে গঠিত চট্টগ্রামে অনলাইন সম্পাদকদের সংগঠন ‘চট্টগ্রাম অনলাইন এডিটর এসোসিয়েশন’ (কনিয়া)’র প্রতিষ্ঠাতা সদস্য সচিব ছিলেন তিনি। এছাড়া বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন (বনপা) চট্টগ্রাম জেলা ও চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবে তিনি দায়িত্ব পালন করেছেন।

চট্টগ্রামের অনলাইন সাংবাদিকতায় তিনি অনুকরণীয় ব্যক্তিত্ব ও দক্ষ সংগঠক হিসেবে সর্ব মহলে সমাদৃত। এমনকি সমালোচকরাও তাকে পরিশ্রমী ও নির্লোভ সংগঠক হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান করেন।

দীর্ঘ দিন সাংবাদিকতা পেশায় বা সংগঠক হিসেবে দায়িত্ব পালন করলেও স্রোতে গা ভাসাননি তিনি। সততার ক্ষেত্রে আপোষহীন এ সাংবাদিক দালালী, তোষামোদী বা দূর্নীতিপরায়নতাকে দু’পায়ে মাড়িয়ে পথ চলায় তার পিতার আদর্শ বুকে ধারণ করেন সর্বদা।

পরিবারের চার ভাই দুই বোনের মধ্যে ২য় তিনি। বৈবাহিক জীবনে তিনি এক পুত্র ও কন্যা সন্তানের জনক। সীতাকুণ্ডের কুমিরা নিবাসী কলি সুলাইমানের সাথে ২০০৯ সালে বিবাহ বন্ধনে আবন্ধ হন সুলাইমান মেহেদী হাসান।আমরা তার দীর্ঘায়ু ও সমৃদ্ধি কামনা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*