চট্টগ্রামের পাঠকপ্রিয় অনলাইন

গ্রামীণফোনের কলড্রপ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ বাণিজ্যমন্ত্রীর

সিটিজি বাংলাঃ

গ্রামীণফোনের ওপর ক্ষোভ ঝাড়লেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। দেশের শীর্ষ মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোনের কলড্রপ নিয়ে সোমবার সংসদে এই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী। এ ব্যাপারে নিজের অভিজ্ঞতার কথাও উল্লেখ করেছেন তিনি।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেছেন, গ্রামীণফোন ব্যবসার জন্য কলড্রপ করে। একটা কলে চার-পাঁচবার কলড্রপ, এটা বাস্তবসম্মত না। এর বিরুদ্ধে একটা পদক্ষেপ নিতে হবে।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে রোববার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে পয়েন্ট অব অর্ডারে এ বিষয়ে কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

এসময় তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গ্রামীণফোনকে বেসরকারি খাতে ব্যবসার জন্য লাইসেন্স দিয়েছিলেন। ইদানীং একটা বিষয় লক্ষ্য করা যাচ্ছে, গ্রামীণফোনের প্রত্যেকটা কলে ‘কলড্রপ’ হয়। একেকটা কলে তিন থেকে চার-পাঁচবার পর্যন্ত কলড্রপ হয়। দেখা যায় একটা কল বারবার করতে হয়। এ ব্যাপারে গ্রামীণফোন কর্তৃপক্ষকে অনুরোধও করেছি।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, দেখা যায় আমরা মোবাইলে একটা গুরুত্বপূর্ণ কথা বলছি, কিন্তু হঠাৎ কলড্রপ। এছাড়া আমরা যখন বিদেশে যাই, আমাদের ফোন রোমিং থাকে। বিদেশ থেকেও একটা ফোন করলে একটা পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। তারা ব্যবসার জন্য কলড্রপ করে। তাও একবার-দুইবার নয়, চার-পাঁচবার কলড্রপ হয়। সুতরাং গ্রামীণফোন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে এর একটি ব্যবস্থা করতে হবে।

বাংলাদেশে প্রায় ৭ কোটির ঊর্ধ্বে গ্রাহক আছে গ্রামীণফোনের। সে হিসেবে বাজারের বড় অংশটাই তাদের দখলে।

তোফায়েল বলেন, ড. ইউনূসকে এই গ্রামীণ টেলিফোন দেয়া হয়েছিল। এর লাভের একটি অংশ গ্রামীণ ব্যাংকের সাথে জড়িত সাধারণ মানুষের পাওয়ার কথা ছিল, কিন্তু তারা পাচ্ছে কি না, জানি না।

READ  চট্টগ্রামে জেলা প্রশাসক বরাবর খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার দাবীতে নগর বিএনপির স্মারকলিপি প্রদান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*