চট্টগ্রামের পাঠকপ্রিয় অনলাইন

ডা. কাজী রফিকুল হকের ইন্তেকাল

নিউজ ডেস্ক

ডা. কাজী রফিকুল হক (১৯৪৪-২০১৯)

ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি চট্টগ্রাম (ইউএসটিসি) এর এনাটমী বিভাগের প্রধান প্রো-ভিসি ডা. কাজী রফিকুল হক ইন্তেকাল করেছেন। আজ ২১ জুন শুক্রবার সকাল ৯ টা ৩০ মিনিটে তিনি ইন্তেকাল করেন।

আগামিকাল (২২ জুন) শনিবার সকাল ১০টায় ইউএসটিসি প্রাঙ্গনে রফিকুল হকের নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। তিনি এক কন্যা ও এক পুত্র সন্তান সহ অসংখ্য আত্মিয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

অধ্যাপক ডা. কাজী রফিকুল হক (পি.এইচ.ডি) ১৯৪৪ সালের ১ ফেব্রুয়ারী চট্টগ্রামের সন্দ্বীপের সারিকাইতে ঐতিহ্যবাহী কাজী পরিবারে জন্মগ্রহন করেন।

১৯৫৪ সালে সারিকাইত প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে নোয়াখালী জেলার অধীনে সন্দ্বীপ সার্কেলে সরকারি প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষায় নোয়াখালী জেলায় প্রথম স্থান অর্জন করেন তিনি।

১৯৫৯ সালে ম্যাট্রিকুলেশন পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগে পূর্ব পাকিস্থান মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ১ম বিভাগে পাশ করেন।

১৯৬১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ থেকে আই.এস.সি পাশ করেন তিনি। ১৯৬৭ সালে ঢাকা ম্যাডিকেল কলেজ থেকে তিনি এম.বি.বি.এস পাশ করেন।

১৯৬৮ সালের ১জানুয়ারী সরকারি হেলথ সার্ভিসে এনাটমী বিভাগে জুনিয়র শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন ডা. কাজী রফিকুল হক। ১৯৭২ থেকে ১৯৮০ সাল পর্যন্ত চট্টগ্রাম ম্যাডিকেল কলেজে এনাটমির জুনিয়র শিক্ষক, সিনিয়র শিক্ষক ও সহকারী প্রভাষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এরপর সরকারি ডেপুটেশনে লিবিয়াতে ১৯৯৩ সাল পর্যন্ত সুনামের সাথে কর্মরত ছিলেন তিনি।

১৯৯৩ সালের শেষের দিকে দেশে ফিরে বঙ্গবন্ধুর চিকিৎসক ডা. নূরুল ইসলামের অনুরোধে ১৯৯৪ সালের ১ জানুয়ারী ইউ.এস.টি.সি‘তে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে এনাটমি’র বিভাগীয় প্রধান হিসেবে যোগদান করেন।

ইউ.এস টি.সি- তে তিনি বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মেয়াদে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, কোষাধ্যক্ষ, প্রো-ভিসি (এ্যাক্টিং), ভিসি (এ্যাক্টিং) সহ প্রায় ২৪ বছর এনিটমির বিভাগীয় প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

READ  ম্যাক্স হাসপাতালে ডাক্তার-নার্স-কর্মচারীদের নিয়োগপত্র নাই - স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

পাশাপাশি তিনি ইউ.এস.টি.সি পরিচালনাধীন বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল হাসপাতালে ক্রান্তিকালে ডি.জি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন রফিকুল হক।

তিনি প্রায় ৫০ বছর এনাটমী’র শিক্ষক ছিলেন। ইউ.এস. টি.সি আলোকিত হওয়ার পেছনে জাতীয় অধ্যাপক ডা. নুরুল ইসলামের ঘনিষ্ঠজন ডা. কাজী রফিকুল হকের অবদান অপরিমেয়।

তিনি ‘Global conjoint twins there ambrayological back ground natural, history and ethical except of surgical separation’ বিষয়ে PHD অর্জন করেন।

ডা. কাজী রফিকুল হকের ইতোমধ্য ৬টি পুস্তক প্রকাশিত হয়েছে। বই গুলো হল-
১/হিস্ট্রোলজী
২/অস্ট্রেলজী
৩/সংযুক্ত জমজের জীবন কাহিনী
৪/হ্রদযন্ত্র
৫/সারপ্রেস এনাটমী ও
৬/নবী করিম (স:)- এর জীবন কাহিনী।

ডা. রফিকুল হক বিনামুল্যে বা নামমাত্র মুল্যে হাজার হাজার গরীব-অসহায় মানুষজনকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে মানবতার কল্যানে নিয়োজিত ছিলেন আমৃত্যু।

# আমরা তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করি। সেই সাথে মানবতার কল্যানে তার চিকিৎসা সেবাকে আল্লাহপাক যেন তার নাজাতের ওসিলা করেন। আমিন।।

তথ্যসূত্র: মুকতাদের আজাদ খান ও কাজী জিয়া উদ্দিন সোহেল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*