চট্টগ্রামের পাঠকপ্রিয় অনলাইন

যে কারনে প্যাড খুলে ফেলেছিলেন তামিম

সিটিজি বাংলা২৪ ডেস্ক :: বিপিএলের দ্বিতীয় দিনেই বিপত্তি! সিলেট সুপারস্টার্সের দুই বিদেশি খেলোয়াড়ের অনানুমতিপত্র (এনওসি) নিয়ে জটিলতার সুত্রপাত হয়। ইংল্যান্ডের রবি বোপারা ও জশুয়া কবের এনওসি এলেও খেলোয়াড় তালিকায় নাম না থাকায় তাঁদের মাঠে নামতে দিতে রাজি হচ্ছিল না চিটাগং ভাইকিংস। সোমবার বিপিএলের প্রথম ম্যাচ শুরু হওয়ার আগে এ নিয়ে দুই পক্ষের খেলোয়াড়-কর্মকর্তাদের মধ্যে কম বাগবিতণ্ডা হয়নি। বাংলাদেশের ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কয়েকজন কর্মকর্তাও ছিলেন ঝামেলা মেটাতে। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে রাগে-ক্ষোভে পা থেকে প্যাডও খুলে ফেলেছিলেন চিটাগং ভাইকিংসের অধিনায়ক ও ওপেনার তামিম ইকবাল।

খেলা শুরু হওয়ার নির্ধারিত সময় বেলা ২টার কিছুক্ষণ আগে বোপারা ও কবের এনওসি পায় সিলেট সুপারস্টার্স। কিন্তু ভুলবশত সিলেটের কর্মকর্তারা খেলোয়াড় তালিকায় তাঁদের নাম রাখেননি। এ কারণেই বোপারা ও কবের খেলতে নামার বিরোধিতা করে চট্টগ্রামের দলটি। ম্যাচ রেফারি রকিবুল হাসানের কাছে আপত্তিও জানায় তারা। এ সময় বিপিএলের টেকনিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস ও বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরী এসে দুই পক্ষের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাদের বোঝানোর চেষ্টা করেন।

কিন্তু চিটাগং ভাইকিংস কিছুতেই বোপারা ও কবকে খেলতে দিতে রাজি হয়নি। বিশেষ করে তামিম প্রতিবাদে সোচ্চার ছিলেন। একে তো খেলোয়াড় তালিকায় দুজনের নাম নেই। তার ওপরে সিলেটের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম দেরিতে আসায় টস হয়েছে প্রায় ২৫ মিনিট দেরিতে। খেলা শুরু হওয়ার আগে বোপারা-কবকে মাঠে দেখে তাই ক্ষোভে ফেটে পড়েন চট্টগ্রামের অধিনায়ক। মাঠে নামার জন্য তৈরি থাকলেও বিসিবি কর্মকর্তাদের সঙ্গে বাগবিতণ্ডার একপর্যায়ে রেগে পা থেকে প্যাড খুলে ফেলেন তামিম।

চট্টগ্রামের বিরোধিতার কারণে শেষ পর্যন্ত দুই বিদেশি খেলোয়াড়কে একাদশে রাখতে পারেনি সিলেট সুপারস্টার্স। এত সব ঝামেলায় খেলা শুরু হয়েছে নির্ধারিত সময়ের প্রায় সোয়া এক ঘণ্টা পর।

READ  বিপিএলে সর্বোচ্চ স্কোরের রেকর্ড গড়ল খুলনা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*