চট্টগ্রামের পাঠকপ্রিয় অনলাইন

Author Archives: Md mozzammel

মাওলানা ওবায়দুল হক স্বরণে সীতাকুণ্ড অনলাইন জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশন এর দোয়া মাহফিল আজ

বিজ্ঞপ্তি::

আজ ৯ই,জুলাই মঙ্গলবার ‘বাংলার নবজাগরণের অগ্রদূত, উপমহাদেশের প্রখ্যাত অালেম,চট্টগ্রাম অঞ্চলের শিক্ষার অগ্রপথিক ও সমাজ সংস্কারক, ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের অন্যতম সংঘটক, সীতাকুণ্ড সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় ও সীতাকুণ্ড কামিল মাদ্রাসা সহ বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম হযরত মাওলানা ওবায়দুল হক সাহেবের ৯৮তম মৃত্যুবার্ষিকী।

এই উপলক্ষে সীতাকুণ্ড অনলাইন জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশন আয়োজন করেছে সীতাকুণ্ড আলিয়া মাদ্রাসায় সকাল ১০ টায় খতমে কোরআন, আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিলের আয়জন করেছে।

এছাড়াও মাওলানা ওবায়দুল হকের জীবনি নিয়ে আয়োজিত কুইজ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কার প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছে সীতাকুণ্ড অনলাইন জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশন এর সভাপতি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম।

উক্ত অনুষ্ঠানে আপনার উপস্থিতি কামনা করছে নেতৃবব্দ।

মির্জাখীল দরবার শরীফের সাহেবে সাজ্জাদা ড. মৌলানা মুহাম্মদ মকছুদুর রহমান (ক.) সাহেব আগামীকাল আনোয়ারায় আসছেন

মোজাম্মেল হক আনোয়ারা ঃ

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার মির্জাখীল দরবার শরীফের বর্তমান সাজ্জাদানশীন হজরত শাহ জাহাঁগীর তাজুল আরেফীন সৈয়দ মৌলানা মোহাম্মদ আরেফুল হাই (কঃ) এর সাহেবে নেমত হজরত শাহ জাহাঁগীর ইমামুল আরেফীন ড. মৌলানা মুহাম্মদ মকছুদুর রহমান (ক.) সাহেব আগামীকাল শুক্রবার আনোয়ারা তশরীফ নিয়ে আসছেন।

উল্লেখ্য যে, দু’শ বছরের অধিককাল ধরে সারা দুনিয়ায় হাজার হাজার খানকাহ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে কোরান -সুন্নাহর প্রকৃত অনুসরণে জ্ঞান শিক্ষাকে প্রাধান্য দিয়ে তাসাউফের পথে ইসলামের নির্যাস ও হেদায়তের বাণী লক্ষ-কোটি মানবের অন্তরে পৌঁছানোর সাধনায় সিলসিলায়ে আলীয়া জাহাঁগীরিয়ার পীর-মুর্শিদগণ সদা-সর্বদা নিয়োজিত রয়েছেন।

সিলসিলাহ ই আলীয়াহ জাহাঁগীরিয়া এর জন্মস্থান, পবিত্র আস্তানা এবং প্রধান মারকয হলো মির্জাখীল দরবার শরীফ, যেথায় জন্ম, বেড়ে উঠা এবং আরামগাহ জাহাঁগীরিয়ার সিলসিলার মহান মহাত্মাগণ হলেন, হজরত শাহ জাহাঁগীর শেখুল আরেফীন সৈয়দ মৌলানা মোখলেসুর রহমান (ক.), হজরত শাহ জাহাঁগীর ফখরুল আরেফীন সৈয়দ মৌলানা মুহাম্মদ আবদুল হাই (ক.), হজরত শাহ জাহাঁগীর শমসুল আরেফীন সৈয়দ মৌলানা মুহাম্মদ মকছুছুর রহমান (ক.), হজরত শাহ জাহাঁগীর তাজুল আরেফীন সৈয়দ মৌলানা মুহাম্মদ আরেফুল হাই (ক.) ও সাজ্জাদানশীন, হজরত শাহ জাহাঁগীর ইমামুল আরেফীন সৈয়দ মৌলানা মুহাম্মদ মকছুদুর রহমান (ক.)।

জানা গেছে, জুমার নামাজের পর মির্জাখীল দরবার শরীফ থেকে রওয়ানা হয়ে আনোয়ারার তৈলারদ্বীপ’র হজরত লতিফ শাহের রহঃ (খলিফা সাহেব) দরগাহস্থ দায়রা ঘরে অবস্থান করবেন। সন্ধ্যায় আনোয়ারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরীর বাড়িতে তরিকতের কর্মসূচি সম্পন্ন করে তৈলারদ্বীপ দায়রা ঘরে রাত্রি যাপন করবেন। শনিবার সকালে বরুমচড়া ফুলগাজী চৌধুরী বাড়ী ও মহুরী বাড়ীতে তরিকতের কর্মসূচিতে অংশগ্রহন করবেন।
এর আগে তিনি গত ২৩ নভেম্বর চন্দনাইশের কাঞ্চননগরস্থ দায়রা ঘরে তশরীফ নিয়ে গেলে তরিকতের ভক্ত-অনুরক্তের ঢল নামে।

দরবারের অনুসারীরা জানান, মির্জাখীল দরবার শরীফের পীর-মুর্শিদগণ ধর্মীয় খেদমতের সাথেসাথে জনকল্যাণকর ও সমাজ সংস্কারমূলক কর্মকান্ডে নিজেদেরকে নিয়োজিত রেখেছেন নিরবে, নিবৃতে। যা কেবলমাত্র সেই জানতো যার কল্যাণ সাধিত হয়েছে। প্রচার বিমূখকতার সেই রীতিতেই অদ্যাবধি মির্জাখীল দরবার শরীফের বর্তমান সাজ্জাদানশীন- হজরত শাহ জাহাঁগীর তাজুল আরেফীন সৈয়দ মৌলানা মুহাম্মদ আরেফুল হাই (ক.), এর পবিত্র অস্তিত্বের উপস্থিতিতে উনারই জানশীন ও সাহেবে সাজ্জাদাহ হজরত শাহ জাহাঁগীর ইমামুল আরেফীন সৈয়দ মৌলানা মুহাম্মদ মকছুদুর রহমান (ক.) এর জাহাঁগীরিয়া সিলসিলার মুরিদগণের প্রতি মায়া-মমতা ভালবাসা ভরা দয়া-দানে, খেদমতে নিজেকে উজাড় করে শরীয়তের অনুসরণ, তরিকতের প্রসার, হাকিকতের শিক্ষা এবং মারেফতের গূঢ় রহস্যর রসাস্বাদনে নিবেদিত রয়েছেন আর তদারকি করছেন গায়েবী জগতের সবচেয়ে পছন্দনীয় এই সিলসিলার তথা স্কুল অব স্পিরিট্যুয়ালিজম’র।

 

তাঁর আনোয়ারা সফরকে ঘিরে ভক্তদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ছে আনন্দ-উদ্দীপনা। ইতিমধ্যে তৈলারদ্বীপ ও বরুমচড়ায় নির্মিত হয়েছে স্বাগত তোরণ।

দরবারের অনুসারী ও বরুমচড়া ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার আবু জাফর চৌধুরী মিজান বলেন, দরবারের সাহেবে সাজ্জাদাহ এর আগমনে আমরা গর্বিত।

একই দরবারের অনুসারী ও আনোয়ারা
উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী বলেন, বড় মৌলানা সাহেবের আগমনকে ঘিরে দুই ইউনিয়নে খুশীর বন্যা বয়ে যাচ্ছে। এলাকা সেজেছে নতুন সাজে। চারদিকে ধর্মীয় ভ্রাতৃত্ববোধের সুবাতাস বয়ে যাচ্ছে।

আনোয়ারায় শাহ্ সুফী ছৈয়দ আছহাব উদ্দিন (রহ.) বার্ষিকী অনুষ্ঠিত

আনোয়ারা প্রতিনিধি

 

আনোয়ারায় হযরত চারপীর আউলিয়া (রহ.) সিনিয়র মাদ্রাসার ওরশ ও মাহফিল পরিচালনা কমিটির উদ্যোগে দক্ষিণ বন্দর হযরত মৌ. শাহ্ সুফী ছৈয়দ আছহাব উদ্দিন (রহ.) ১২০ তম বার্ষিকী উপলক্ষ্যে গত শনিবার রাতে মিলাদ মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

চারপীর আউলিয়া (রহ.) সিনিয়র মাদ্রাসার শিক্ষক ও মাহফিল পরিচালনা কমিটির সম্মন্বয়ক খাদেম মোহাম্মদ নাছির উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সহকারি শিক্ষক মোহাম্মদ শাহেদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কুতুব শরীফ দরবারের যুগ্ম পরিচালক ও আশেকানে গাউছে মোখ্তার যুব কমিটি বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শাহাজাদা শাহ্ আবদুল করিম আল কুতুবী আল আজমী, প্রধান ওয়ায়েজ ছিকন খলিফা আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মৌ. হাফেজ আহমদ আলকাদেরী, বিশেষ ওয়ায়েজ বোয়ালখালী খিতাপচর আজিজিয়া মাবুদিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার আরবী প্রভাষক মৌ. মুহাম্মদ গোলম হোসেন, বড়উঠান গাউছিয়া হাশেমীয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসার পরিচালক মৌ. ইলিয়াছ আজম নুরী, বিশেষ অতিথিদের মাঝে বক্তব্য রাখেন, উত্তর বন্দর গাউছিয়া হাশেমীয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসার পরিচালক মৌ. মনির আহমদ আনোয়ারী, আশেকানে গাউছে মোখ্তার যুব কমিটি বাংলাদেশ আনোয়ারা উপজেলার সভাপতি ও শাহ্ মোহছেন আউলিয়া তৈয়্যবিয়া গাউছিয়া সুন্নিয়া দাখিল মাদ্রাসার প্রধান অধ্যক্ষ কাজী মৌ. জাকের হোসাইন আনছারী, আশেকানে গাউছে মোখ্তার যুব কমিটি বাংলাদেশ বৈরাগ ইউনিয়নের সভাপতি মৌ. ইদ্রিছ আলকাদেরী, চারপীর আউলিয়া (রহ.) সিনিয়র মাদ্রাসার শিক্ষক মৌ. মোবারক হোসেন, ধর্মীয় শিক্ষক মৌ. ছাবের আহমদ, দক্ষিণ বন্দর আজিজিয়া তৈয়্যবিয়া কামালিয়া হেফজখানার প্রতিষ্ঠাতা মৌ. কামাল উদ্দিন আলকাদেরী প্রমূখ।

আমনে বাম্পার ফলন’ কৃষকের মুখে হাসির ঝিলিক

মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক” আনোয়ারা

 

হেমন্তের আগমনে ঘরে ঘরে নবান্ন উৎসব চলছে। চট্টগ্রাম জেলার আনোয়ারা উপজেলায় আমন ধানের বাম্পার ফলন হওয়ায় কৃষকের চোখে-মুখে আনন্দের ঝিলিক দেখা দিয়েছে। আমন ধানে ধানে ভরে গেছে মাঠ। যতদূর চোখ যায় মাঠে সোনালি ধানের শীষ। চারদিকে মৌ মৌ গন্ধ। এখন কৃষাণ-কৃষাণিরা গোলা, খলা, আঙ্গিনা পরিষ্কার করার কাজে ব্যস্ত।

সরজমিন ঘুরে দেখা গেছে, উপজেলার ১১ টি ইউনিয়নেআমন ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। আগাম জাতের কিছু কিছু ধান পাকলেও ২০/২৫ দিনের মধ্যে আমন ধান পুরোদমে কাটা-মাড়াই শুরু হবে। বন্যার কারণে কৃষকের ফসলের ক্ষতি হলেও আমন ধানের ফলন ভালো হওয়ায় আশায় বুক বাঁধছেন কৃষকরা।বর্তমানে ধানের দামও ভালো। তা ছাড়া আগাম ধান কাটার পর আবার একই জমিতে মরিচ. আলু. টমেটো সহ সবজী জাতীয় ফসল চাষ করতে পারবেন কৃষকরা।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় এবার আমন আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৬ হাজার ১৮০ হেক্টর জমিতে। লক্ষ্যমাত্রার চেয়েও অধিক পরিমাণ জমিতে আমন ফসল অর্জিত হবে বলে আশা প্রকাশ করেন। বন্যার কারণে উপজেলার ১১ টি ইউনিয়নে প্রায় ২ হাজার ৮৭০ হেক্টর জমিতে আমনের চারা নষ্ট হয়ে যায়। আমনের চারা নষ্ট হওয়া জমিগুলো আমাদের পরামর্শে কৃষকরা আবার নতুন করে আমন ধানের চারা লাগায়। আমনের চারা নষ্ট হওয়া জমিগুলোসহ আবহাওয়া অনুকুল পরিবেশে ভালো থাকায় এবার আমন ধানে বিভিন্ন রকমের রোগবালাই কম হওয়ায় কৃষকরা স্বপ্রণোদিত হয়ে বাড়তি জমিতে আমন ধানের চাষ করেছে, বিধায় উপজেলায় এবার আমন ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে।

মেরিন একাডেমী স্কুল এন্ড কলেজের পূণনর্মিলনীর প্রস্তুতি সভা

আনোয়ারা প্রতিনিধি
বাংলাদেশ মেরিন একাডেমী স্কুল এন্ড কলেজের প্রথম পূনর্মিলনী অনুষ্ঠানের আয়োজক কমিটির উদ্যোগের পূনর্মিলনী অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়।

গত সোমবার সন্ধ্যায় বিদ্যালয়ের কক্ষে মেরিন একাডেমী স্কুল এন্ড কলেজের পরিচালনা কমিটির সভাপতি আবুল কালাম খানের সভাপতিত্বে পূনর্মিলনী প্রস্তুতি সভায় উপস্থিত ছিলেন, বিদ্যালয়ের প্রধান অধ্যক্ষ মোহাম্মদ নাসির উদ্দীন, পূনর্মিলনীর প্রধান সমন্বয়ক ক্যাপ্টেন খোরশেদুল আলম, মিজানুর রহমান, মোবারক মিয়া, এমদাদ হোসেন, প্রকৌশলী রামচন্দ্র দাশ, বোরহান উল্লাহ, মামুন মিয়াজী, হামিদুল হক, মো. সেজান মাহিন, অপি, মুজিবুর রহমান প্রমূখ। সভায় আগামী ২৩ নভেম্বর বিদ্যালয়ের প্রথম পূনর্মিলনী অনুষ্ঠান সফল করার আহবান জানান।

বন্ধু মহলের উদ্যোগে পিইসি পরীক্ষার্থীদের শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ

আনোয়ারা প্রতিনিধি

কর্ণফুলী বড়উঠান এইচ. এ খাঁন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পিইসি পরীক্ষার্থীদের শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ করেন স্থানীয় বন্ধু মহল নামে একটি সংগঠন।

গত বৃহস্পতিবার সকালে বড়উঠান এইচ. এ খাঁন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংগঠনের উপদেষ্টা জাহেদুল আলম সুমনের সভাপতিত্বে ও মোহাম্মদ মহিউদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, বড়উঠান ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সাজ্জাদ খান সুমন, বিশেষ অতিথিদের মাঝে বক্তব্য রাখেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কান্ত দে, সহকারি শিক্ষক মিলি দে, ঝনা দে, অভিভাবক সদস্য জসিম উদ্দিন প্রমূখ। অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবকসহ স্থানীয় ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

আনোয়ারায় শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষক

 

 

মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক


আনোয়ারা উপজেলার প্রতিটি এলাকায় অধিক লাভের আশায় আগাম শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকেরা।
এ বছর বৃষ্টি কম হওয়ায় উঁচু জমিতে শীতকালীন বিভিন্ন জাতের সবজির চারা রোপণ ও পরিচর্যায় কাক ডাকা ভোরে ঘুম থেকে উঠে জমিতে হাল চাষ, চারা রোপণ, ক্ষেতে পানি ও ক্ষেতের আগাছা পরিষ্কার করাসহ নানা কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা।

শুধু নিজেদের চাহিদাই নয়, বাণিজ্যিকভাবে চাষ হচ্ছে এসব সবজি। শীতের শুরুতে চট্টগ্রাম সহ পার্শ্ববর্তী জেলা গুলোতে বিভিন্ন জাতের সবজি পাঠায় আনোয়ারার কৃষকরা।

মাঠজুড়ে এখন শোভা পাচ্ছে সারি সারি আলু, সিম,ফুলকপি, বাঁধাকপি,টমেটো, লাউ, বেগুন, মুলা, করলা, পটল, পালং ও লাল শাক মরিচ সহ রকমারি শীতকালীন সবজির চারা।

কেউ দাঁড়িয়ে কোঁদাল চালাচ্ছেন, কেউ গাছের গোঁড়ালির পাশ দিয়ে ঘোরাচ্ছেন নিড়ানি, কেউবা খালি হাতেই গাছগুলো ঠিক করছেন। কেউ বা নেতিয়ে পড়া চারার স্থলে সতেজ চারা প্রতিস্থাপন করছেন, আবার কেউ সার দিচ্ছেন কেইবা পানি দিচ্ছেন । এভাবেই শীতকালীন সবজি নিয়ে কাটছে এখানকার কৃষকের দিন।

বরুমচড়া গ্রামের কৃষক নরুল ইসলাম বলেন, ধান চাষে তেমন একটা সুবিধা করতে পারছেন না তারা। কোনোভাবেই লোকসান ঠেকাতে পারছেন না, তাই রকমারি সবজি চাষে ঝুঁকে পড়েছেন উপজেলার অনেক কৃষক।

উপজেলার আইর মঙ্গল গ্রামের কৃষক আব্দুর কারিম বলেন, সবজি চাষের জন্য খুব বেশি জমির প্রয়োজন হয় না। তুলনামূলক ভাবে মূলধনও কম লাগে। পরিশ্রমও তুলনামূলক কম। তবে সেবায় ক্রটি করা যাবে না। কিন্তু রোগবালাই দমনে সবজি ক্ষেতে সবসময় তদারকি করতে হয়। স্বল্প সময়েই সবজি বিক্রির উপযোগী হয়ে উঠে।

উপজেলা কৃষি অফিসার বলেন উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে শাক-সবজি চাষ-আবাদ চলছে। সবজির কদর সারাদেশেই রয়েছে। তবে তা আগাম চাষ করতে পারলে আরও বেশি মুনাফা পাওয়া যায়। আধুনিক পদ্ধতি ব্যবহার করলে কীটনাশকমুক্ত সবজি চাষ করা সম্ভব। সবজি ক্ষেতে পোকামাকড় আক্রমণ করবেই। সেজন্য কীটনাশক ব্যবহার না করে আধুনিক বিভিন্ন পদ্ধতি ব্যবহার করে পোকামাকড় দমন করা সম্ভব।

এ কৃষি কর্মকর্তা আরো বলেন, কৃষকদের সবজি চাষে উন্নত প্রযুক্তির ব্যবহার সম্পর্কে প্রশিক্ষণ দিয়ে সহায়তা করা হচ্ছে । সবজি চাষে যুক্ত উপজেলার কৃষকরা এবার বেশ উৎফুল্ল। কারণ তারা প্রাকৃতিক পরিবেশ অনুকূল থাকায় এবার উৎপাদিত ফসলের ফলন ও দাম বেশ ভালো পাবেন বলে তিনি মনে করছেন। কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে প্রাতদিন নিয়মিত মনিটরিং করা হচ্ছে। কৃষকদের সেক্সফোরেমন পদ্ধতির ব্যবহারে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। এ পদ্ধতি ব্যবহারের ফলে সবজি ক্ষেতে কীটনাশক ব্যবহার অনেকটাই কম থাকায় সবজি গুণগত মানে সেরা হওয়ায় চাহিদাও অনেক বেশি ।

যুবককে অপহরণের চেষ্টা গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

মোজাম্মেল হক আনোয়ারা.

আনোয়ারা উপজেলার পারকি সমুদ্র সৈকতের দক্ষিণে উত্তর পরুয়াপাড়া বেঁড়িবাধ এলাকায় রোববার সন্ধ্যায় এক যুবককে অপহরণের চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। পাঁচজনের একটি দল মাদক সেবন নিয়ে বিরোধের জেরে তাকে গাড়িতে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে বলে চালায় প্রত্যক্ষদর্শীরা। এ সময় স্থানীয় জনতা এগিয়ে এসে দুইজনকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।

পুলিশ জানায়, গতকাল সকালে চট্টগ্রাম শহর থেকে সিএনজি টেক্সি নিয়ে রাউজানের উরকিরচরের মৃত আনোয়ার চৌধুরীর পুত্র তাসিফ আনোয়ার (২৮) সহ ৫ জন পারকি সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে আসে। এদের সাথে আনোয়ারায় গুন্ধীপের সাইফুল ইসলাম নামের এক যুবকও ছিল। সারাদিন ঘুরাঘুরির পর সন্ধ্যায় উত্তর পরুয়াপাড়া গ্রামের বাবু (২৮) নামে এক যুবককে সাথে নিয়ে তারা পরুয়াপাড়া বেঁড়িবাধ এলাকায় মাদক সেবন করতে যায়। সেখানে বাবুর সাথে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। এক পর্যায়ে বাবুকে জোর করে সিএনজিতে করে নিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়রা ধাওয়া করলে সিএনজিটি পারকি এলাকায় উল্টে যায়।

এ সময় আনোয়ারায় গুন্ধীপের সাইফুলসহ তিন যুবক পালিয়ে গেলেও রাউজানের তাসিফ আনোয়ার ও অজ্ঞাত চালক জনতার গণপিটুনির শিকার হয়। খবর পেয়ে আনোয়ারা থানা পুলিশ তাদের উদ্ধার করে নিয়ে আসে। স্থানীয় অন্য একটি সূত্র জানায়, বাবু এলাকায় মাদক বিক্রির সাথে জড়িত। আরেক পক্ষ বলছে, বাবু স্থানীয় সিএনজি চালক। তাকে অজ্ঞাত যুবকেরা ডিবি পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাচ্ছিল।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে আনোয়ারা থানার এসআই একরাম উজ্জামান জানান, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে স্থানীয় সিএনজি চালক বাবুর সাথে শহর থেকে বেড়াতে আসা যুবকদের মাদকের ঘটনা নিয়ে ঝগড়া হয়। পরে বাবুকে তুলে নেয়ার সময় জনতা তাদের পিটুনি দেয়।

আনোয়ারায় ইসলামী ফ্রন্টের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল

আনোয়ারা প্রতিনিধি:

আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত সমন্বয় কমিটির সদস্য সচিব ও গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট মোছাহেব উদ্দিন বখতেয়ারের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে আনোয়ারায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকেলে উপজেলার চাতরী চৌমুহনী চত্বরে এ কর্মসূচি পালন করে আনোয়ারা উপজেলা ইসলামী ফ্রন্ট,যুবসেনা ও ছাত্রসেনা। উপজেলা ইসলামী ফ্রন্টের সভাপতি মাওলানা কাজী বদরুজ্জামান নঈমীর সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা ইসলামী ফ্রন্টের উপদেষ্টা মাস্টার এয়াকুব আলী। উপজেলা ইসলামী ফ্রন্টের সহ সাধারণ সম্পাদক মো. মোরশেদ আলম মুন্সীর সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন সহ সভাপতি মাওলানা মনির আহমদ আনোয়ারী,হাফেজ আবদুর রহিম,সাংগঠনিক সম্পাদক ফিরোজ মিয়া,অর্থ সম্পাদক ইসমাঈল হোসেন, মাওলানা নাজিম উদ্দিন,শায়ের এনামুল হক,শামসুল হুদা মুনির,যুবনেতা আবু তাহের,ছাত্রনেতা আরমান হোসেন প্রমুখ। বক্তারা সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানিয়ে ঘটনায় জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

আনোয়ারায় জাগো বৈরাগ ফাউন্ডেশনেরর উদ্যোগে পিএসসি পরীক্ষার্থীদের শিক্ষা সামগ্রী বিতরন

 

মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক ঃ আনোয়ারা :


আনোয়ারায় সামাজিক সংগঠন জাগো বৈরাগ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে গতকাল শনিবার সকালে পূর্ব বৈরাগ রহমানিয়া গাউছিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসার পিএসসি সমাপনী পরীক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী বিতরনী অনুষ্ঠানে আয়োজন করা হয়েছে।

রহমানিয়া গাউছিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসা সুপার মৌলানা লোকমান হাকিম হেলালীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, জাগো বৈরাগ ফাউন্ডেশনের পৃষ্ঠপোষক এম. কামাল উদ্দিন, বিশেষ অতিথিদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের উপদেষ্টা ওমর ফারুক, মফিজুর রহমান, নুরুল ইসলাম, সাদ্দাম হোসেন, সদস্য সালাউদ্দিন সাব্বির, সাজ্জাদ হোসেন, মাহিন প্রমূখ। অনুষ্ঠানে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।