চট্টগ্রামের পাঠকপ্রিয় অনলাইন

বোয়ালখালী

বোয়ালখালীতে র‍্যাবের হাতে ১০৬৩ লিটার চোলাই মদসহ আটক ৩

সিটিজি বাংলা, বোয়ালখালী প্রতিনিধি:

প্রতীকী ছবি

চট্টগ্রাম জেলার বোয়ালখালীতে অভিযান চালিয়ে ১ হাজার ৬৩ লিটার চোলাই মদ উদ্ধার করেছে র‌্যাব-৭।

 

৭ সেপ্টেম্বর শুক্রবার গভীর রাতে উপজেলার পশ্চিম গোমদণ্ডী মরহুম নূর বক্স সওদাগর মঞ্জিলের সামনের রাস্তা থেকে বিক্রির জন্য জড়ো করে রাখা অবস্থায় এসব মদ উদ্ধার করা হয়।

 

এসময় তিনজনকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। আটককৃতরা হলেন- চাঁপাই নবাবগঞ্জের হটাৎপাড়া গ্রামের হুমায়ুন কবিরের ছেলে মো. শফিকুল ইসলাম (৩০), চট্টগ্রামের চান্দগাঁও মোহরার মৃত তোফাজ্জল আহমদের ছেলে মো. হাসান (২৬) ও বোয়ালখালী উপজেলার পূর্ব গোমদণ্ডী বহদ্দারপাড়ার মো. রফিকুল ইসলামের ছেলে মো. আলমগীর (২৪)।

 

র‌্যাব সদস্য আনসার নাজমুল হুদা এ বিষয়ে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ড্রাম ও বস্তাভর্তি ১০৬৩ লিটার চোলাই মদ উদ্ধার করা হয়। এসময় তিনজনকে আটক করা হয়। তবে এসময় উপজেলার পশ্চিম গোমদণ্ডী এলাকার মরহুম নূর বক্সের ছেলে মো.হোসেন নামের এক যুবক পালিয়ে গেছে।

এ বিষয়ে ৪জনকে আসামী করে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে বোয়ালখালী থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং আসামিদের উক্ত থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

বোয়ালখালীতে জাতীয় বিদ্যুৎ ও জ্বালানী সপ্তাহ শোভাযাত্রার মধ্যদিয়ে পালিত

সিটিজি বাংলা, বোয়ালখালী প্রতিনিধি:

 

জাতীয় বিদ্যুৎ ও জ্বালানী সপ্তাহ উপলক্ষে শোভাযাত্রা

চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে জাতীয় বিদ্যুৎ ও জ্বালানী সপ্তাহ উপলক্ষে শোভাযাত্রা র ্যালীর মধ্যদিয়ে পালিত হয়েছে।

৬ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় এ শোভাযাত্রা শেখ হাসিনার উদ্যোগ-ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ’ এ স্লোগানকে সামনে রেখেই এক বিশাল র‌্যালী উপজেলা সদরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

 

বর্তমান সরকারের আমলে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের সাফল্য তুলে ধরে সাধারণ মানুষকে জানাতে শোভাযাত্রাটি উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে শুরু হয়ে সদর বাজারের প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে একই স্থানে এসে শেষ হয়। এ শোভাযাত্রা থেকে নিজ নিজ বাড়ি বা প্রতিষ্ঠানে বিদ্যুৎ সাশ্রয় করার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

 

চট্রগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর আয়োজনে অনুষ্ঠিত র‌্যালীতে অংশগ্রহন করেন বোয়ালখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আছিয়া খাতুন, বোয়ালখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের একাংশের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা এস এম সেলিম, বোয়ালখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নুরুল আমিন চৌধুরী, চট্রগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগ নেতা রেজাউল করিম বাবুল, বোয়ালখালী পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) মো.রফিকুল আজাদ, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর পরিচালক আশরাফ উদ্দিন কাজলসহ আরো অনেকে।

 

এছাড়াও বোয়ালখালী থানার ওসি তদন্ত মাহবুবুল আলম আখন্দ, বোয়ালখালী উপজেলা জাসদের সভাপতি মনির উদ্দিন খান,বোয়ালখালী জাসদের সাধারণ সম্পাদক ওবাইদুল হক, বোয়ালখালী প্রেসক্লাবের সাধরণ সম্পাদক স ম রবিউল হোসাইনসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠিত র‌্যালীতে অংশগ্রহন করেন।

বোয়ালখালীর কদুরখীলে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টূর্ণামেন্ট অনুর্ধ্ব-১৭ উদ্বোধন অনুষ্ঠিত

সিটিজি বাংলা, বোয়ালখালী প্রতিনিধি:

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন করলেন ইউএনও আছিয়া খাতুন

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত জাতীয় যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্দ্যোগে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টূর্ণামেন্ট অনুর্ধ্ব-১৭ এর উদ্বোধন করা হয়েছে।

 

৬ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেলে কধুরখীল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বেলুন উড়িয়ে এ টূর্ণামেন্ট উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আছিয়া খাতুন।

 

এ টূর্ণামেন্টে মোট ১০টি দল অংশগ্রহণ করেছে। এগুলো হলো- চরণদ্বীপ ইউনিয়ন, শাকপুরা ইউনিয়ন, পশ্চিম গোমদন্ডী ইউনিয়ন, কদুরখীল ইউনিয়ন, বোয়ালখালী পৌরসভা, পোপাদিয়া ইউনিয়ন, আহলা করলডেঙ্গা ইউনিয়ন, সারোয়াতলী ইউনিয়ন, আমুচিয়া ইউনিয়ন ও শ্রীপুর খরণদ্বীপ ইউনিয়ন।

 

টুর্নামেন্টের সূচীপত্র

বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় উদ্বোধনী খেলায় অংশ গ্রহণ করেন চরণদ্বীপ ইউনিয়ন বনাম শাকপুরা ইউনিয়ন। শাকপুরা একাদশ ২-০ গোলে চরণদ্বীপ একাদশকে পরাজিত করে।

টুর্নামেন্টের উদ্বোধনকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আছিয়া খাতুন বলেন, সুষ্ঠু সুন্দর মনের নাগরিক গড়ে তোলার লক্ষ্যে সরকারের এ উদ্দ্যোগ গ্রহণ করেছে। এতে প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে ভালো খেলোয়াড় উঠে আসবে এবং জাতীয় পর্যায়ে খেলার সুযোগ সৃষ্টি হবে সরকার আশা করেন।

 

এ টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জহিরুল আলম জাহাঙ্গীর, জাসদ সভাপতি মনির উদ্দিন আহমদ খান, ইউপি চেয়ারম্যান এসএম জসিম, মো. মোকারম, আব্দুল মান্নান মোনাফ, কাজল দে, হামিদুল হক মান্নান, আবু তাহের, ও পৌর প্যানেল মেয়র এসএম মিজানুর রহমান।

 

এছাড়াও  পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১ বোয়ালখালী ডেপুটি জোনাল ম্যানেজার রফিকুল আজাদ, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা অফিসার সদানন্দ পাল ও মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. ইউনুচ ও অধ্যাপক কামাল উদ্দিনসহ আরো গণমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকীর অনুষ্ঠান বন্ধের নির্দেশ দিলেন ইউএনও

সিটিজি বাংলাঃ

বোয়ালখালীতে শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদ আয়োজিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাত বার্ষিকীর অনুষ্ঠান বন্ধ করে দিয়েছে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও)।

মঙ্গলবার (২৮ আগস্ট) বিকেলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আছিয়া খাতুন এ নির্দেশ প্রদান করেন। ইউএনও জানান, শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদ ও ইউনিয়ন স্বেচ্ছা সেবক লীগ একই স্থানে একই সময়ে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। স্ব-স্ব সিদ্ধান্তে অনড় থাকায় উভয় পক্ষকে অনুষ্ঠান না করার জন্য বলা হয়েছে। যদি এ নির্দেশ তারা না মানেন তবে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বোয়ালখালী উপজেলার শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে পরিষদ চত্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে শোক সভা ও মেজবান আগামী ৩০ আগস্ট বৃহস্পতিবার বিকেল তিনটায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আছিয়া খাতুন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা ছিল।

এ লক্ষে শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয় বলে জানিয়েছেন ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোকারম। তিনি বলেন, অনুষ্ঠান উপলক্ষে পোস্টার, ব্যানার ও মেজবানের জন্য গরু-ছাগল ক্রয় করা হয়ে গেছে। প্রায় ৪হাজার মানুষের জন্য আয়োজন রয়েছে। এছাড়া পরিষদ চত্বরে মঞ্চ নির্মাণ কাজ শেষ পর্যায়ে।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ২৭ আগস্ট সোমবার সন্ধ্যায় স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি দলবদ্ধ হয়ে একইস্থানে মাইক লাগায় ও ডেকোরেশনের সরঞ্জাম জড়ো করে রাখে। বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনকে জানালে পুলিশ অনুষ্ঠানস্থলে গিয়ে তাদের কাজ বন্ধ রাখতে বলে। পরবর্তীতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে বৈঠক করার জন্য বলেন। বুধবার দুপুরে এ বৈঠক অনুুষ্ঠিত হয়। বৈঠক শেষে কয়েকজন দুর্বৃত্ত ইউপি সদস্য ইব্রাহীম (৪১), উপজেলা কৃষকলীগের সদস্য বাদশা আলম (৩০) কে  মারধর করেছে।

ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের ব্যানারে একই স্থানে একই সময়ে শোকসভা ও কর্মী সভা আহ্বান করায় এ জটিল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। তবে ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের কোনো সভা ওই স্থানে আহ্বান করা হয়নি বলে জানিয়েছেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মিজানুর রহমান সেলিম।

এ ব্যাপারে ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. লোকমান ও সাধারণ সম্পাদক মো. ফারুক মিয়া জানান, ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানে শাহাদাত বার্ষিকী পালন করা হয়নি। বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগের একনিষ্ট কর্মী হওয়ায় এ আয়োজন করেছেন। এতে হিংসার বশবর্তী হয়ে কয়েকজন ব্যক্তি স্বেচ্ছাসেবক লীগের নাম ভাঙ্গিয়ে অনুষ্ঠানটি প- করে দিয়েছে।

জানা গেছে, শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইসমাঈল হোসেন খোকনের লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলার নির্বাহী কার্যালয়ে দু’পক্ষের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে দুইপক্ষ স্ব-স্ব সিদ্ধান্তে অনড় থাকায় উভয়পক্ষকে কোনো ধরণের সভা-সমাবেশ না করার নির্দেশ দেন ইউএনও।

বোয়ালখালীতে গ্যাস সিলিন্ডারের আগুনে দগ্ধ ২

বোয়ালখালী প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রাম জেলার বোয়ালখালীতে গ্যাস সিলিন্ডার থেকে সৃষ্ট আগুন লেগে দুইজন অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন। ২০ আগষ্ট সোমবার সকাল পৌণে ১১টার দিকে পৌরসভার পশ্চিম কধুরখীল বড়ুয়া পাড়ার মানু বড়ুয়ার বাড়িতে এ দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।

আগুন নেভাতে গিয়ে গৃহকর্তা মানু বড়ুয়া (৫৫), তার স্ত্রী অপরা বড়ুয়া (৪০) দগ্ধ হয়েছেন বলে জানিয়েছেন বোয়ালখালী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ইনচার্জ মো. শামিমুজ্জমান।

তিনি জানান, পশ্চিম কধুরখীল বড়ুয়া পাড়ার রানী ভবনের ৩য় তলার একটি ভাড়াবাসার রান্না ঘরের গ্যাস সিলিন্ডারে আগুন লেগে ১০হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তবে প্রায় লক্ষাধিক টাকার মালামাল রক্ষা করা গেছে। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

বোয়ালখালীতে বিদ্যুৎপৃষ্টে মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু

বোয়ালখালী প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রাম জেলার বোয়ালখালীতে বিদ্যুৎপৃষ্টে মোহাম্মদ আলী (৭২) নামের এক মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু হয়েছে।

১৯ আগস্ট রোববার উপজেলার কধুরখীল ইউনিয়নের চৌধুরী হাটের নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে তিনি বিদ্যুৎপৃষ্ট হন।

বোয়ালখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আবদুল্লাহ আল ইফরান জানান, সন্ধ্যা ৭টা সময় তাকে হাসপাতালে আনা হলে মৃত ঘোষণা করা হয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী উপজেলার কধুরখীল ইউনিয়নের হারুন চেয়ারম্যান বাড়ীর মরহুম দেলা মিয়ার ছেলে। তিনি ৩ ছেলে ও ৩মেয়ের জনক বলে জানা গেছে।

বঙ্গবন্ধুর শোক দিবস পালন উপলক্ষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উপস্থিতিতে দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভা অনুষ্ঠিত

সিটিজি বাংলা, নগর প্রতিবেদক:

 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উপস্থিতিতে জিইসি কনভেনশন হলে দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সমাবেশের ছবি

 

চট্টগ্রাম নগরীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ উদ্দেগ্যে জিইসি কনভেনশন হলে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

১২ আগস্ট রবিবার সকাল সাড়ে ১১টায় এ সভা শুরু হয় এবং চলে বিকেল পর্যন্ত। সভা শুরুর আগে জাতির জনকসহ ১৫ আগষ্টে নিহত সকলের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করেন।

 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাস্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তিনি দুপুর ১২টা ১০ মিনিটে সভাস্থলে পৌছেন।

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ১৫আগষ্ট বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতাসহ আমরা অনেকককে হারিয়েছি। তারপর আমাদের অপেক্ষা করতে হয়েছে ২১বছর। আমার দেখেছি যুদ্ধাপরাধীদের গাড়ীতে জাতীয় পতাকা উড়ছে। ১৫আগষ্টের পর বিদেশীরা আমাদের প্রশ্ন করেছিলো তোমার কেমন জাতি যে তোমরা জাতির পিতাকে হত্যা করো।

 

সভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশের মানুষ বিশ্বাস করে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধুর অবর্তমানে তার সুযোগ্য কণ্যা শেখ হাসিনা অবস্থান সৃষ্টি করেছে। তার নেতৃত্বে তার সুযোগ্য নেতৃবৃন্দরা দেশ উন্নয়নে সহযোগীতা করে যাচ্ছে। যার ফসলে দুর্নীতিতে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ান দেশ আজ সফল বাংলাদেশ। খাদ্য ঘাটতির দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ং সম্পুর্ণ। সন্ত্রাস জঙ্গিবাদের দেশ আজ শান্তি ও সুশৃঙ্খল এবং নিরাপত্তার বাংলাদেশ।

 

দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোসলেম উদ্দিনের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় সভার প্রধান অতিথি ছিলেন বিশেষ অতিথি হিসেবে ভুমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ।

ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেন, বিগত সকল সংসদ নির্বাচনের চাইতেও আগামী সংসদ নির্বাচন বেশি গুরুত্বপূর্ণ। সকল নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পুনরায় নির্বাচিত করে দেশ উন্নয়নে অব্যাহত রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। পাশাপাশি আগামী সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সব কয়টা আসন প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দেওয়ার কথা উল্লেখ করেন ভুমিমন্ত্রী।

এ সময় তিনি আরো বলেন,৭৫ এর ঘাতকরা দেশকে অস্থিতিশীল করার ষড়যন্ত্রের জন্যই জন্মগ্রহণ করেছে। এখনো তারা ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের শুসৃঙ্খল আন্দোলনেও তারা কৌশলে প্রবেশ করে সারাদেশে নৈরাজ্য সৃষ্টির যে পায়তারা করেছে তাই প্রমাণ করে তারা এখনো ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।

 

এছাড়াও চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এ সালাম, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন ও উপ দপ্তর সম্পাদক ব্যারিষ্টার বিপ্লব বড়ুয়াসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

 

উক্ত অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম নগর, দক্ষিন ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ,ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দদের যথেষ্ঠ উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

বোয়ালখালীতে দুইটি অটোরিকশার সংঘর্ষে প্রবাসী নিহত

সিটিজি বাংলা, বোয়ালখালী প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রাম জেলার বোয়ালখালীতে দুইটি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে মো. রায়হান (২৮) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন।

৩ আগস্ট শুক্রবার বিকেলে উপজেলার আরাকান সড়কের ফুলতল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলাউদ্দিন তালুকদার জানান, গুরুতর আহত অবস্থায় রায়হানকে হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

 

নিহত মো. রায়হান পশ্চিম গোমদন্ডী চরখিজিরপুরের টেঙ্ঘর এলাকার সোলায়মান কন্ট্রাক্টর বাড়ীর জিনু মিয়ার ছেলে বলে জানা গেছে। তিনি একজন প্রবাসী, গত তিনদিন আগে প্রবাস থেকে দেশে এসেছিলেন।

 

এ বিষয়ে পশ্চিম গোমদন্ডী ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো. আবু তাহের জানান, রায়হান গত এক বছর আগে বিয়ে করে বিদেশে গিয়েছিল। গত তিনদিন আগে দেশে আসে। বাড়ি থেকে অটো রিকশা করে ফুলতল যাওয়া পথে দূর্ঘটনার শিকার হয়।

চট্টগ্রামের আলোচিত সমর কৃষ্ণ চৌধুরী অবশেষে জামিন পেলেন

সিটিজি বাংলা,

 

চট্টগ্রাম আদালত থেকে অস্ত্র ও ইয়াবা রাখার অপরাধে আটক হওয়া আলোচিত ও সমালোচিত বোয়ালখালী উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ও আইনজীবীর সহকারি সমর কৃষ্ণ চৌধুরী (৬৩) অবশেষে জামিন পেলেন।

 

১০ জুলাই মঙ্গলবার তার উপর অর্পিত মামলার শুনানি শেষে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মুন্সী আবদুল মজিদ অস্ত্র মামলায় সমর কৃষ্ণ চৌধুরীকে জামিন দেয়া হয়।

 

 

জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সমর কৃষ্ণ চৌধুরীর আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী বলেন, আদালত অস্ত্র উদ্ধারের মামলায় সমর কৃষ্ণ চৌধুরীর জামিন মঞ্জুর করেছেন। এর আগে ২৪ জুন একই আদালত ইয়াবা উদ্ধারের মামলায় সমর কৃষ্ণ চৌধুরীর জামিন মঞ্জুর করেছিলেন।

 

 

প্রসঙ্গত, বোয়ালখালী উপজেলার সারোয়াতলী গ্রামের সমর কৃষ্ণ চৌধুরীকে গত ২৮ মে ‘অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধারের’ মামলায় আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠায় বোয়ালখালী থানা পুলিশ।

তবে তার পরিবারের সদস্যদের দাবি, বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক সঞ্জয় দাশের সঙ্গে বিরোধের জেরে বোয়ালখালী থানা পুলিশ সমর কৃষ্ণ চৌধুরীকে চট্টগ্রাম নগর থেকে তুলে নিয়ে মাদক ও অস্ত্র দিয়ে মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ করে আসছিলেন শুরু থেকেই।

চমেক হাসপাতালের ২৮ জন চিকিৎসক বিভিন্ন উপজেলায় বদলি করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

সিটিজি বাংলা,

 

 

চট্টগ্রাম নগরীর সরকারি মেডিকেল কলেজ (চমেক)ও হাসপাতালের ২৮ জন চিকিৎসককে বিভিন্ন উপজেলার হাসপাতালগুলোতে বদলির আদেশ জারি করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

 

১০ জুলাই মঙ্গলবার এ আদেশ আসে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে বলেছেন বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. এএম মজিবুল হক।

 

ওই ২৮ জন চিকিৎসককে আগামী ১৫ জুলাই রোববারের মধ্যে আগের কর্মস্থল থেকে ছাড়পত্র সংগ্রহ করে নতুন বদলির কর্মস্থলে যোগদান করতে নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় হতে জানান বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. এএম মজিবুল হক।

 

এ বিষয়ে তিনি জানান, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে এক আদেশে চট্টগ্রাম শহরের বিভিন্ন সরকারি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের দায়িত্বরত ২৮ চিকিৎসককে বিভিন্ন উপজেলার হাসপাতালে বদলি করা হয়েছে। তাদের ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে ছাড়পত্র নিতে হবে এবং নতুন কর্মস্থলে চলে যেতে হবে।

 

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. কিশোয়ার নাসরিনকে বদলি করা হয়েছে কক্সবাজার জেলার মহেশখালীর কালারমারছড়া ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে,

চমেক হাসপাতালের সহকারী সার্জন ডা. অর্পনা দাশকে রাউজান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে,
চমেক হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. রখি বণিককে সাতকানিয়ার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে,
চট্টগ্রামের ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের সহকারী সার্জন ডা. শরমিলা বড়ুয়াকে কক্সবাজারের রামুর কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে
ও সহকারী সার্জন ডা. মো. আনোয়ার হোসেনকে আনোয়ারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বদলি করা হয়েছে।

 

এ ছাড়া চমেক হাসপাতালের ইনডোর মেডিকেল অফিসার ডা. আনোয়ার সাঈদকে সীতাকুণ্ডের সৈয়দপুর ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে,

চমেকের সহকারী সার্জন ডা. পলাশ নাগকে বাঁশখালীর ছনুয়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে,

চমেক হাসপাতালের সহকারী সার্জন ডা. প্রসেনজিৎ ঘোষকে চন্দনাইশের বরকল ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে,

সহকারী সার্জন ডা. মুমতাহিনা মাহমুদাকে পটিয়ার শিকলবাহা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কেন্দ্রে,

মেডিকেল অফিসার ডা. মুহাম্মদ তাহেরুল ইসলামকে মিরসরাই কমর আলী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে,

চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের সহকারী সার্জন ডা.শুভ দাশকে বাঁশখালীর সরল ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে,

চমেক হাসপাতালের সহকারী সার্জন ডা. লাইলী ইয়াসমীন আক্তারকে দোহাজারী ৩১ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে,

ফৌজদারহাট আইএইচটির সহকারী সার্জন ডা. শামীমা আক্তারকে মিরসরাই সাহেরখারী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে,

চমেক হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. আবিরুল ইসলামকে বড়হাতিয়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে,

চট্টগ্রাম ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালেল সহকারী সার্জন ডা. পলাশ কান্তি করকে লোহাগাড়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে,

রৌফবাদ আরবান ডিসপেন্সারির সহকারী সার্জন ডা. রিফাত বিরতে রেজায়ীকে, হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে,

চমেক হাসপাতালের ইনডোর মেডিকেল অফিসার ডা. তাহিরা বেনজীরকে লোহাগাড়া চরম্বা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে

ও চমেকের মেডিকেল অফিসার শারাবানা তাহুরাকে ফেনীর শর্শদী উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে বদলি করা হয়েছে।