চট্টগ্রামের পাঠকপ্রিয় অনলাইন

প্রেস ক্লাব

কপি রাইটের বিরুদ্ধে বিএনটিভি’র নজিরবিহীন পদক্ষেপ, সর্বমহলে প্রশংসিত

অনলাইন মিডিয়ায় কপি রাইট বা কপি পেস্টের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় বিভিন্নজনে বিভিন্ন ধরনের মতামত দিয়ে থাকেন। ঝড় তোলেন গণমাধ্যমে।

তবে কম বেশি কপি পেস্ট করেন না এমন মিডিয়া খুজে পাওয়াও এখন দুস্কর।

কেউ একটু কাট-ছাট করেন। আবার কেউ খানিকটা ফেলে বাকিটা বসিয়ে দেন।

আবার কেউ বা ঘটনটা পড়ে নিজের মত করেই লিখে ফেলেন পুরো সংবাদ।

আবার কপি পেস্ট এডিটরও রাখেন অনেকে।

কিন্তু অন্যের প্রচারিত ভিডিও সংবাদে পুলিশের লোগো বসিয়ে নিজেদের নামে প্রচার করার মত ঘটনা কেউ শুনেননি কখনও।

আর এমন অবিশ্বাস্য ঘটনায় ঘটেছে এবার।

গত ৮ জানুয়ারি পুলিশের একটি মানবতাবাদি ঘটনার ভিডিও প্রচার করে চট্টগ্রামের জনপ্রিয় অনলাইন টেলিভিশন বিএনটিভি। সংবাদটি এতটাই হৃদয়গ্রাহী ও আবেদনময়ী ছিল যে কয়েকদিনের মধ্যে এটি দু’কোটি মানুষের কাছে পৌঁছে যায়। এমনকি এক মিলিয়নের বেশী লোক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিওটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত দেখে। হাজার হাজার কমেন্টসে তাদের অনুভূতি ব্যক্ত করে পাঠক।

কিন্তু হঠাৎ গত ১০ জানুয়ারি নাম্বার ওয়ান নামের একটি ফেসবুক পেইজ ভিডিওটি কপি (নকল) করে আপলোড দেয়।এসময় তারা ভয়েসসহ ভিডিওর সবকিছু ঠিক রেখে সেখানে বিএনটিভির লোগোর পরিবর্তে বাংলাদেশ পুলিশের লোগো বসিয়ে দেয়।

বিএনটিভির ভিডিওতে পুলিশের লোগো ব্যবহারের মত প্রতারণায় মর্মাহত হয় টেলিভিশনটির কৃর্তৃপক্ষ। একই সাথে বিষয়টি বাংলাদেশ পুলিশের সুনাম ক্ষুন্ন ও অনলাইন গণমাধ্যমের সুষ্ঠধারা বিকাশে পথে অন্তরায় মনে করে বিএনটিভি।

তাৎক্ষণিক আইনগত পদক্ষেপের সিদ্ধান্ত নেয় প্রতিষ্ঠানটি।বিএনটিভির সম্পাদক শেখ রাজিবুল আনোয়ার নাম্বার ওয়ান পেইজের প্রতারণার বিষয়টি উল্লেখ করে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেনের কাছে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

একই সাথে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মাহবুবুর রহমান, চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা ও র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক মেজর মেহেদী হাসানের বরাবরে অনুলিপি প্রদান করা হয়।

চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেস ক্লাবের নির্বাহী সভাপতি সুলাইমান মেহেদী হাসান বলেন, কপি-পেস্ট বা কপি-রাইটকে আমরা সহজভাষায় নকল বলে থাকি। শিক্ষার্থীদের মেধা বিকাশে নকল যেমন অন্তরায় সৃষ্টি করে তেমনি কপি-পেস্টও সুস্থ সাংবাদিকতার ধারাকে বাধাগ্রস্থ করে।এজন্য অনলাইন নীতিমালা চুড়ান্তকরণ ও অনলাইন গণমাধ্যমের রেজিস্ট্রেশন জরুরী। অন্যথায় কপি রাইট ঠেকানো অনেকটাই অসম্ভব বলে মনে করি।

এ বিষয়ে বিএনটিভির প্রধান উপদেষ্টা সাংবাদিক মাখন লাল সরকার বলেন, অনলাইন গণমাধ্যমের সুনাম রক্ষায় নকল (কপি-পেস্ট) বর্জন করা উচিত। এ ব্যাপারে সচেতনতা সৃষ্টি জরুরী।

বিএনটিভির চেয়ারম্যান ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা শেখ মোজাফফর আহমদ এর পুত্র শেখ ফরিদুল আনোয়ার জানান, ডিজিটাল বাংলাদেশের অন্যতম সারথি হিসেবে কাজ করছে অনলাইন গণমাধ্যম। কিন্তু কতিপয় দুস্কৃতিকারী বিভিন্ন নামে-বেনামে অনলাইন পোর্টাল-টিভি-পেইজ ইত্যাদি চালু করে সরকার, দেশ ও জাতির মারাত্মক ক্ষতি করছে। একই সাথে সুনাম ক্ষুন্ন করছে প্রকৃত ও পেশাদার সাংবাদিকদের। এসবের বিরুদ্ধে এখনই কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা জরুরী।

 

বিএনটিভি সম্পাদকের সম্মাননা লাভ

মো. নাজমুলঃ

বিএনটিভি সম্পাদক শেখ রাজীব আনোয়ারের (বাঁয়ে) হাতে সম্মাননা তুলে দিচ্ছেন প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ মো. জয়নাল আবেদীন। ছবি- মো. নাজমুল

অক্সফোর্ড মডার্ন স্কুল এন্ড কলেজের পক্ষ থেকে সম্মাননা লাভ করেছেন বিএনটিভির সম্পাদক শেখ রাজীব আনোয়ার। ১১ নভেম্বর রোববার বিকালে নগরীর রীমা কমিউনিটি সেন্টারে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে এ সম্মাননা প্রদান করা হয়।

প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ মো. জয়নাল আবেদীন বিএনটিভি সম্পাদকের হাতে এ সম্মাননা তুলে দেন। এ সময় অধ্যক্ষ বিএনটিভি’র বস্তুনিষ্ঠ সংবাদের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং চট্টগ্রামের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে বিশ্ব দরবারে উপস্থাপনের জন্য সম্পাদককে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

এর আগে সকাল ৯টা থেকে অক্সফোর্ড মডার্ন স্কুল এন্ড কলেজের দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানটি বিএনটিভি, বিএনটিভি’র ইউটিউব চ্যানেল ও ফেসবুক পেইজে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন কোতয়ালী জোনের সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট পুলিশ কমিশনার জাহাঙ্গীর আলম।

প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ জয়নাল আবেদীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের চেয়ারম্যান ড. আমীর মুহাম্মদ নসরুল্লাহ।

বিশেষ অতিথি ছিলেন, কাউন্সিলর মোহাম্মদ জাবেদ, কাউন্সিলর হাজী জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, সদরঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন, বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি চট্টগ্রাম শাখার সিনিয়র সহ-সভাপতি সাহাব উদ্দিন, কাউন্সিলর আলহাজ্ব আব্দুল কাদের, সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র মোহাম্মদ হোসেন, পিআইবি চট্টগ্রাম জেলা’র ইন্সপেক্টর (প্রশাসন), আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা’র গ্লোবাল অ্যাম্বাসেডর মতিউর রহমান সৌরভ।

সাংবাদিক সুলাইমান মেহেদী হাসানের ৩৯ তম জন্মদিন আজ

দেলোয়ার হোসাইনঃ

সুলাইমান মেহেদী হাসান

আজ ১৫ অক্টোবর ২০১৮। সাংবাদিক, সংগঠক সুলাইমান মেহেদী হাসানের ৩৯ তম জন্মদিন। ১৯৭৯ সালের এই দিনে তিনি চট্টগ্রাম জেলার সন্দ্বীপ থানার রহমতপুর গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন।

পিতা আব্দুল বাতেন বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস কর্পোরেশনের বিদ্যুৎ প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। চাচা তামজিদুর রহমান বাংলাদেশ বিমানের উপ-প্রধান প্রকৌশলীর দায়িত্ব শেষে অবসর গ্রহণ করেন। প্র-পিতামহ ছমদ আলী মিয়াজী ও পিতামহ মুন্সি মুহিব উল্লাহ ছিলেন একনিষ্ঠ মুসলিম ও ইসলাম ধর্মের প্রচারক।

মাতা হাফছা খানমের পিতা ডা. জহুরুল আলম খান। পিতামহ সন্দ্বীপের প্রথম চাটার্ড একাউন্টেন্ট আবুল কালাম আজাদ। প্র-পিতামহ মাওলানা ওয়াজিউল্লাহ খান ছিলেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত ইসলামী চিন্তাবিদ।

সৎ ও নিষ্ঠাবান পিতার আদর্শে পথ চলার দীর্ঘ প্রায় এক যুগের সাংবাদিকতা পেশায় পরিচ্ছন্নতার স্বাক্ষর রেখে চলেছেন সুলাইমান মেহেদী হাসান ।সন্দ্বীপের প্রথম রেজিস্ট্রার্ড পত্রিকা সোনালী সন্দ্বীপের মাধ্যমে তার হাতেখড়ি।পরবর্তীতে জাতীয় দৈনিক খবরপত্রের বিশেষ প্রতিনিধি ও পত্রিকাটির চট্টগ্রামের জন্য বিশেষভাবে প্রকাশিত ‘চট্টলাপত্র’ তার হাত ধরে নিয়মিত প্রকাশিত হয়েছে।

এরপর জাতীয় দৈনিক ‘ঢাকা প্রতিদিন’ এর চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধানের দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানে তিনি অর্থিনীতি প্রধান পত্রিকা ‘বিজনেস বাংলাদেশ’ এর চট্টগ্রাম ব্যুরোর দায়িত্বে নিয়োজিত আছেন।

প্রিন্ট পত্রিকার পাশাপাশি ডিজিটাল বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে অনলাইন গণমাধ্যমকে প্রাধান্য দিয়েছেন তিনি।

২০১২ সাল থেকে অনলাইন নিউজ পোর্টাল বিডিটাইমস৭১ এর সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। একই সময় তিনি চট্টগ্রামের প্রথম ও শীর্ষ স্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিটিজি টাইমসের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের খন্ডকালীন দায়িত্ব পালন করেন।

২০১৪ সালে দৈনিক ইনকিলাবের চট্টগ্রামের প্রাক্তন ব্যুরো প্রধান, বর্তমান ডেইলি অবজারভারের চট্টগ্রাম ব্যুরো ও চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি মোস্তাক আহমেদ সম্পাদিত বাংলা এক্সপ্রেস ডটকম’র বার্তা সম্পাদক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

বর্তমানে তিনি সিটিজি বাংলা টুয়েন্টিফোর ডটকম এর প্রকাশক। চট্টগ্রামের শীর্ষ স্থানীয় অনলাইন নিউজ পোর্টালের মধ্যে স্থান করে নেয়া এ পত্রিকাটির সম্পাদনায় রয়েছেন প্রবীণ ও সর্বজন শ্রদ্ধেয় সাংবাদিক মাখন লাল সরকার।

এছাড়া তিনি বন্দর নগরী টেলিভিশন (বিএনটিভি) এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োজিত আছেন।

সীতাকুণ্ডের স্থায়ী বাসিন্দা সুলাইমান মেহেদী ‘সাপ্তাহিক সীতাকুণ্ড’ নামে একটি পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদনার দায়িত্বে রয়েছেন।

কেবল সাংবাদিকতাই নয়,সাংবাদিকদের অধিকার আদায়েও সুলাইমান মেহেদী হাসান নিরলস কাজ করে চলেছেন। বিশেষ করে অনলাইন গণমাধ্যমের স্বীকৃতি ও এ মাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকদের যথাযথ মূল্যায়নের দাবিত তিনি সর্বদা সোচ্চার ভূমিকা পালন করে আসছেন।

২০১২ সালে গঠিত চট্টগ্রামে অনলাইন সম্পাদকদের সংগঠন ‘চট্টগ্রাম অনলাইন এডিটর এসোসিয়েশন’ (কনিয়া)’র প্রতিষ্ঠাতা সদস্য সচিব ছিলেন তিনি। এছাড়া বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এসোসিয়েশন (বনপা) চট্টগ্রাম জেলা ও চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবে তিনি দায়িত্ব পালন করেছেন।

চট্টগ্রামের অনলাইন সাংবাদিকতায় তিনি অনুকরণীয় ব্যক্তিত্ব ও দক্ষ সংগঠক হিসেবে সর্ব মহলে সমাদৃত। এমনকি সমালোচকরাও তাকে পরিশ্রমী ও নির্লোভ সংগঠক হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান করেন।

দীর্ঘ দিন সাংবাদিকতা পেশায় বা সংগঠক হিসেবে দায়িত্ব পালন করলেও স্রোতে গা ভাসাননি তিনি। সততার ক্ষেত্রে আপোষহীন এ সাংবাদিক দালালী, তোষামোদী বা দূর্নীতিপরায়নতাকে দু’পায়ে মাড়িয়ে পথ চলায় তার পিতার আদর্শ বুকে ধারণ করেন সর্বদা।

পরিবারের চার ভাই দুই বোনের মধ্যে ২য় তিনি। বৈবাহিক জীবনে তিনি এক পুত্র ও কন্যা সন্তানের জনক। সীতাকুণ্ডের কুমিরা নিবাসী কলি সুলাইমানের সাথে ২০০৯ সালে বিবাহ বন্ধনে আবন্ধ হন সুলাইমান মেহেদী হাসান।আমরা তার দীর্ঘায়ু ও সমৃদ্ধি কামনা করছি।

একুশে পত্রিকা সম্পাদকের বিরুদ্ধে ওসির জিডি, সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের নিন্দা

সিটিজি বাংলাঃ

সংবাদ প্রকাশের জের ধরে একুশে পত্রিকার সম্পাদক আজাদ তালুকদারের বিরুদ্ধে নিজের থানায় ‘সাধারণ ডায়েরি’ (জিডি) করেছেন চট্টগ্রামের বোয়ালখালী থানার ওসি সাইরুল ইসলাম।

‘জিডির’ একটি কপি ওই পত্রিকা অফিসে পাঠানো হলেও এতে নেই ওসির স্বাক্ষর-সীল। জিডির নাম্বার ৮৪৩, তারিখ- ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮।

এর আগে গত ২৩ সেপ্টেম্বর ‘সরকারি গাড়ি নয়, কর্মস্থলে ব্যক্তিগত গাড়িতে ঘোরেন ওসি!’ শিরোনামে একটি বিশেষ সংবাদ প্রকাশ করে একুশে পত্রিকা। এতে উল্লেখ করা হয়, বোয়ালখালী থানার নতুন ওসি সাইরুল ইসলাম সরকারি গাড়ির পরিবর্তে ব্যক্তিগত বিলাসবহুল গাড়ি ব্যবহার করছেন। এছাড়া বোয়ালখালীতে যোগদানের আগে ওসির কক্ষে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন শীতাতপ নিয়ন্ত্রণযন্ত্র (এসি) লাগান সাইরুল ইসলাম।

ওই প্রতিবেদনে ক্ষুব্ধ হয়েই ওসি নিজের থানায় একুশে পত্রিকা সম্পাদক আজাদ তালুকদারের বিরুদ্ধে এ ‘জিডি’ রেকর্ড করেন বলে জানা গেছে।

জিডিতে প্রাইভেট গাড়ি নিয়ে ঘোরার বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়ে ওসি লিখেছেন, ‘… সংবাদের বিষয়ে এই মর্মে ভবিষ্যতের জন্য নোট করিতেছি যে, আমার গাড়ি হিসেবে যে গাড়িটি ব্যবহার করিতেছি মর্মে সংবাদ প্রকাশ করা হইয়াছে তাহা আমার ছোটভাই সাইফুল ইসলাম-এর ব্যবহৃত নিজস্ব গাড়ি। যাহা কয়েকদিন আগে আমার ছোটভাই ঢাকা হইতে চট্টগ্রামে উক্ত গাড়ি নিয়ে আসার পর গাড়িটিতে ক্রুটি দেখা দেওয়ায় গাড়িটি মেরামতের জন্য আমার কাছে রেখে যান।’

নিজের কক্ষে এসি লাগানোর বিষয়ে জিডিতে ওসি লিখেছেন, ‘পূর্ব থেকে থানার রেস্ট রুমে থাকা এসিটি স্থান বদল করে আমার অফিসকক্ষে লাগানো হইয়াছে। এই ক্ষেত্রে কাহারো থেকে কোনপ্রকার দান বা অনুদান গ্রহণ করা হয় নাই।’

‘…রেজি:বিহীন বেআইনীভাবে একুশে পত্রিকা নামীয় অনলাইন সংবাদপত্রের সম্পাদক সঠিকতা ও বাস্তবতা যাচাই না করিয়া মিথ্যা ও ভুয়া তথ্য সম্বলিত বর্ণিত সংবাদটি প্রকাশ করিয়াছে। …উক্ত বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি গোচরীভূত করণসহ সংশ্লিষ্টদের বিষয়ে পরবর্তী প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে ভবিষ্যতের জন্য ডায়রীতে নোট রাখা হইল।’ জিডিতে এভাবে উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সরকারের অনুমোদন নিয়ে সাপ্তাহিক পত্রিকা হিসেবে ‘একুশে পত্রিকা’ ছাপা হয় প্রায় ১৪ বছর ধরে। পাঠকচাহিদার কথা বিবেচনা করে গত তিনবছর ধরে অন্য গণমাধ্যমগুলোর মত অনলাইন ভার্সন চালু করেছে একুশে পত্রিকা। এর বাইরে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী অনলাইন পত্রিকা হিসেবে নিবন্ধন পেতে অন্য সবার মত আবেদনও করেছে ‘একুশেপত্রিকাডটকম’।

এখন পর্যন্ত কোন অনলাইন গণমাধ্যমকে সরকার নিবন্ধিত করতে পারেনি; তবে নিবন্ধনের জন্য আবেদন করার পর অনলাইন পত্রিকা হিসেবে সক্রিয় থাকার ক্ষেত্রে কোনো আইনি বাধা নেই বলে সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের পক্ষ থেকে বিভিন্ন সময়ে জানানো হয়েছে।

একটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) মত দায়িত্বশীল পদে থেকে একজন পুলিশ কর্মকর্তা কোন তথ্য-প্রমাণ ছাড়াই একটি স্বনামধন্য গণমাধ্যমকে ‘রেজি:বিহীন’ বলাটা দুঃখজনক বলছেন সাংবাদিক নেতারা। তারা বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে গণমাধ্যম সবচেয়ে বেশি সম্প্রসারিত ও বিকশিত হলেও প্রশাসনের কিছু কর্মকর্তার কারণে দেশে সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে বিভিন্ন সময়ে প্রশ্ন উঠছে। নিজের অনৈতিক কর্মকাণ্ড আড়াল করতে ক্ষমতার বড় ধরনের অপব্যবহার করেছেন ওসি সাইরুল।

এদিকে, সাংবাদিক আজাদ তালুকদারের বিরুদ্ধে বোয়ালখালী থানার ওসি সাইরুল ইসলাম জিডি করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নসহ বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতারা।

বিবৃতিদাতা নেতারা হলেন, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব সভাপতি কলিম সরওয়ার, সাধারণ সম্পাদক শুকলাল দাশ, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি নাজিমুদ্দিন শ্যামল, সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব মহসীন কাজী, নির্বাহী সদস্য রুবেল খান ও আজহার মাহমুদ।

সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, সাংবাদিকতা কোনো অপরাধ নয়। একটি সংবাদকে কেন্দ্র করে পত্রিকার সম্পাদকের বিরুদ্ধে জিডি করে বোয়ালখালী থানার ওসি ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন। এ ধরনের ঘটনা স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিপন্থী। প্রজাতন্ত্রের একজন কর্মচারী হয়ে তিনি এ ধরনের আচরণ করতে পারেন না। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানোর পাশাপাশি অবিলম্বে একুশে পত্রিকা সম্পাদক আজাদ তালুকদারের বিরুদ্ধে দায়ের করা জিডি প্রত্যাহারের দাবি জানাই। আশা করি, এ ব্যাপারে ওসির শুভবুদ্ধির উদয় হবে।

একুশে পত্রিকা সম্পাদকের বিরুদ্ধে ওসির জিডি, সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের নিন্দা

সিটিজি বাংলাঃ
সংবাদ প্রকাশের জের ধরে একুশে পত্রিকার সম্পাদক আজাদ তালুকদারের বিরুদ্ধে নিজের থানায় ‘সাধারণ ডায়েরি’ (জিডি) করেছেন চট্টগ্রামের বোয়ালখালী থানার ওসি সাইরুল ইসলাম।

‘জিডির’ একটি কপি ওই পত্রিকা অফিসে পাঠানো হলেও এতে নেই ওসির স্বাক্ষর-সীল। জিডির নাম্বার ৮৪৩, তারিখ- ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮।

এর আগে গত ২৩ সেপ্টেম্বর ‘সরকারি গাড়ি নয়, কর্মস্থলে ব্যক্তিগত গাড়িতে ঘোরেন ওসি!’ শিরোনামে একটি বিশেষ সংবাদ প্রকাশ করে একুশে পত্রিকা। এতে উল্লেখ করা হয়, বোয়ালখালী থানার নতুন ওসি সাইরুল ইসলাম সরকারি গাড়ির পরিবর্তে ব্যক্তিগত বিলাসবহুল গাড়ি ব্যবহার করছেন। এছাড়া বোয়ালখালীতে যোগদানের আগে ওসির কক্ষে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন শীতাতপ নিয়ন্ত্রণযন্ত্র (এসি) লাগান সাইরুল ইসলাম।

ওই প্রতিবেদনে ক্ষুব্ধ হয়েই ওসি নিজের থানায় একুশে পত্রিকা সম্পাদক আজাদ তালুকদারের বিরুদ্ধে এ ‘জিডি’ রেকর্ড করেন বলে জানা গেছে।

জিডিতে প্রাইভেট গাড়ি নিয়ে ঘোরার বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়ে ওসি লিখেছেন, ‘… সংবাদের বিষয়ে এই মর্মে ভবিষ্যতের জন্য নোট করিতেছি যে, আমার গাড়ি হিসেবে যে গাড়িটি ব্যবহার করিতেছি মর্মে সংবাদ প্রকাশ করা হইয়াছে তাহা আমার ছোটভাই সাইফুল ইসলাম-এর ব্যবহৃত নিজস্ব গাড়ি। যাহা কয়েকদিন আগে আমার ছোটভাই ঢাকা হইতে চট্টগ্রামে উক্ত গাড়ি নিয়ে আসার পর গাড়িটিতে ক্রুটি দেখা দেওয়ায় গাড়িটি মেরামতের জন্য আমার কাছে রেখে যান।’

নিজের কক্ষে এসি লাগানোর বিষয়ে জিডিতে ওসি লিখেছেন, ‘পূর্ব থেকে থানার রেস্ট রুমে থাকা এসিটি স্থান বদল করে আমার অফিসকক্ষে লাগানো হইয়াছে। এই ক্ষেত্রে কাহারো থেকে কোনপ্রকার দান বা অনুদান গ্রহণ করা হয় নাই।’

‘…রেজি:বিহীন বেআইনীভাবে একুশে পত্রিকা নামীয় অনলাইন সংবাদপত্রের সম্পাদক সঠিকতা ও বাস্তবতা যাচাই না করিয়া মিথ্যা ও ভুয়া তথ্য সম্বলিত বর্ণিত সংবাদটি প্রকাশ করিয়াছে। …উক্ত বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি গোচরীভূত করণসহ সংশ্লিষ্টদের বিষয়ে পরবর্তী প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে ভবিষ্যতের জন্য ডায়রীতে নোট রাখা হইল।’ জিডিতে এভাবে উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সরকারের অনুমোদন নিয়ে সাপ্তাহিক পত্রিকা হিসেবে ‘একুশে পত্রিকা’ ছাপা হয় প্রায় ১৪ বছর ধরে। পাঠকচাহিদার কথা বিবেচনা করে গত তিনবছর ধরে অন্য গণমাধ্যমগুলোর মত অনলাইন ভার্সন চালু করেছে একুশে পত্রিকা। এর বাইরে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী অনলাইন পত্রিকা হিসেবে নিবন্ধন পেতে অন্য সবার মত আবেদনও করেছে ‘একুশেপত্রিকাডটকম’।

এখন পর্যন্ত কোন অনলাইন গণমাধ্যমকে সরকার নিবন্ধিত করতে পারেনি; তবে নিবন্ধনের জন্য আবেদন করার পর অনলাইন পত্রিকা হিসেবে সক্রিয় থাকার ক্ষেত্রে কোনো আইনি বাধা নেই বলে সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের পক্ষ থেকে বিভিন্ন সময়ে জানানো হয়েছে।

একটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) মত দায়িত্বশীল পদে থেকে একজন পুলিশ কর্মকর্তা কোন তথ্য-প্রমাণ ছাড়াই একটি স্বনামধন্য গণমাধ্যমকে ‘রেজি:বিহীন’ বলাটা দুঃখজনক বলছেন সাংবাদিক নেতারা। তারা বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে গণমাধ্যম সবচেয়ে বেশি সম্প্রসারিত ও বিকশিত হলেও প্রশাসনের কিছু কর্মকর্তার কারণে দেশে সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে বিভিন্ন সময়ে প্রশ্ন উঠছে। নিজের অনৈতিক কর্মকাণ্ড আড়াল করতে ক্ষমতার বড় ধরনের অপব্যবহার করেছেন ওসি সাইরুল।

এদিকে, সাংবাদিক আজাদ তালুকদারের বিরুদ্ধে বোয়ালখালী থানার ওসি সাইরুল ইসলাম জিডি করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নসহ বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতারা।

বিবৃতিদাতা নেতারা হলেন, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব সভাপতি কলিম সরওয়ার, সাধারণ সম্পাদক শুকলাল দাশ, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি নাজিমুদ্দিন শ্যামল, সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব মহসীন কাজী, নির্বাহী সদস্য রুবেল খান ও আজহার মাহমুদ।

সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, সাংবাদিকতা কোনো অপরাধ নয়। একটি সংবাদকে কেন্দ্র করে পত্রিকার সম্পাদকের বিরুদ্ধে জিডি করে বোয়ালখালী থানার ওসি ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন। এ ধরনের ঘটনা স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিপন্থী। প্রজাতন্ত্রের একজন কর্মচারী হয়ে তিনি এ ধরনের আচরণ করতে পারেন না। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানোর পাশাপাশি অবিলম্বে একুশে পত্রিকা সম্পাদক আজাদ তালুকদারের বিরুদ্ধে দায়ের করা জিডি প্রত্যাহারের দাবি জানাই। আশা করি, এ ব্যাপারে ওসির শুভবুদ্ধির উদয় হবে।

বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চারনেতা স্মৃতি পরিষদের উদ্যোগে বঙ্গমাতা বেগম ফতিলাতুননেছার ৮৯তম জন্মদিন পালিত

সিটিজি বাংলা, রুমেন চৌধুরী:

 

বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চারনেতা স্মৃতি পরিষদের উদ্যোগে মহীয়সী নারী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা’র ৮৯তম জন্ম দিন উপলক্ষে ‘জাতির পিতার জীবনে শেখ ফজিলাতুন নেছার প্রভাব’ শীর্ষক আলোচনা সভা, শেখ ফজিলাতুন নেছার জীবন ভিত্তিক বই বিতরণ, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

 

৮ আগস্ট বুধবার দপুরে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন মিউনিসিপ্যাল মডেল স্কুল ও কলেজ মিলনায়তনে শিক্ষক, অভিভাবক ও ছাত্র-ছাত্রীদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হয়।

 

 

এতে সভাপতিত্ব করেন নগরীর ২৪নং উত্তর আগ্রাবাদ ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও চসিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি নাজমুল হক ডিউক।

 

সভায় নাজমুল হক ডিউক বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশের রূপকার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশ ও স্বাধীন রাষ্ট্র গঠনে অসামান্য অবদানের জন্য যে নারীর ত্যাগ, অবদান ও প্রেরণার কাছে ঋণী তিনি হলেন বঙ্গবন্ধুর স্ত্রী শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব (রেনু)।

 

এ সময় অনুষ্ঠানে মহীয়সী নারী শেখ ফজিলাতুন নেছার জীবন ও কর্ম বিষয়ে একটি প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চারনেতা স্মৃতি পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবদুর রহিম।

 

‘জাতির পিতার জীবনে শেখ ফজিলাতুন নেছার প্রভাব এবং তার জীবন ও কর্মের উপর আলোকপাত করে আলোচকগণ বক্তব্য রাখেন।

 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি পেশাজীবী নেতা প্রখ্যাত সাংবাদিক রিয়াজ হায়দার চৌধুরী।

 

বিএফইউজের সহ-সভাপতি রিয়াজ হায়দার বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব তাঁর জীবন এবং যৌবনের বেশিরভাগ সময় ব্যয় করেছেন, দেশ ও জনগণের সেবায়। বিভিন্ন সময়ে তিনি কারাভোগ সহ নানা বিপর্যয়ের মুখোমুখি হয়েছেন। তাঁর সেই সময়গুলোতে কান্ডারীর মতো হাল ধরেছিলেন বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব।

 

প্রধান আলোচক ছিলেন ৩৩নং ফিরিঙ্গী বাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব।

 

প্রধান আলোচক বলেন, বাঙালির স্বপ্ন আকাংখা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে সংগ্রাম ও আন্দোলনের মাধ্যমে শেখ মুজিবের বঙ্গবন্ধু হয়ে উঠার পেছনে বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের অবদান ছিল অসামান্য।

 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চারনেতা স্মৃতি পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ড. জিনবোধি ভিক্ষু।

 

তিনি বলেন, জাতির জনকের স্ত্রী হয়েও বেগম মুজিব রাষ্ট্রীয় সুবিধা ভোগ করেননি। সভাপতির বক্তব্যে কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউক বলেন, বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব একদিকে যেমন শক্ত হাতে সংসার সন্তানদের সামলিয়েছেন, তেমনি নিজের ব্যক্তিগত চাওয়া-পাওয়াকে অতিক্রম করে স্বামীর সংগ্রামের সহযোদ্ধা হিসেবে নীরবে ছায়া সঙ্গীর মতো যুগিয়েছেন সাহস ও উদ্দীপনা।

 

 

এছাড়া্ও আলোচনা করেন অত্র কলেজের অধ্যক্ষ সাহেদুল কবির চৌধুরী, প্রভাষক আবদুল হক, আবু সাঈদ নূরী, জহির সিদ্দিকী, সাঈদুল আনোয়ার, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও সাহিত্য চর্চার পরিষদের সভাপতি সালাউদ্দিন লিটন, সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা চৌধুরী, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সদস্য বোরহান উদ্দিন গিফারী, অনিন্দ্য দেব, ইরফান উদ্দিন, মোঃ হানিফ হোসেন, উচ্ছ্বাস-এর সভাপতি আবদুল আজিম, সালমান রশিদ, জাকির হোসেনসহ অন্যরা।

 

শুভ জন্মদিন তরুন সাংবাদিক ইমরান

 

আজ ৬ আগস্ট আনোয়ারা উপজেলার উত্তর গুয়াপঞ্চক গ্রামের তরুণ সাংবাদিক আনোয়ারা অনলাইন পত্রিকার বিশেষ প্রতিবেদক এম. ইমরান হোসাইনের ২৪তম জন্মদিন।
তাঁর সুদক্ষ চিন্তা-চেতনায় ‘আনোয়ারা অনলাইন পত্রিকা’ পাঠককুলে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে চলেছে । তাঁর এই শুভ জন্মদিনে ‘সিজিটি বাংলা২৪.কম’ পরিবারের পক্ষ থেকে থেকে নিরন্তর শুভেচ্ছা ও শুভকামনা।
১৯৯৪ সালের এই দিনে আনোয়ারা উপজেলার বৈরাগ ইউনিয়ের উত্তর গুয়াপঞ্চক গ্রামের জবির আহমদের পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।
তরুণ এ সাংবাদিকের জন্মদিনে আনোয়ারা প্রেসক্লাবের অর্থ সম্পাদক ও আনোয়ারা অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি হুমায়ূন কবির শাহ্ সুমন ও সিটিজি বাংলা২৪.কমের বিশেষ প্রতিবেদক মোজাম্মেল হিমালয়সহ অন্যান্য শোভাকাঙ্খীরা তাঁকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ও তার উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেছেন।

২১তম রথযাত্রা উপলক্ষে সাংবাদিক সম্মেলনে ইস্কন নেতৃবৃন্দের ৬ দফা দাবি

সিটিজি বাংলা,

 

 

চট্টগ্রাম আয়োজিত শ্রীশ্রী জগন্নাথদেবের ২১তম রথযাত্রা‘১৮ উপলক্ষে আন্তজার্তিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ (ইস্কন) বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে।

 

১০ জুলাই মঙ্গলবার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে এনিয়ে সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে এক মতবিনিময় সভা আয়োজন করা হয়।

 

সাংবাদিক সম্মেলনে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের জাতীয় নেতৃবৃন্দ ও চট্টগ্রাম ইস্কন নেতৃবৃন্দ রথযাত্রা উৎসবের দিন রাষ্ট্রীয়ভাবে সরকারি ছুটি ঘোষণা, সনাতন ঐতিহ্যের উজ্জ্বল নক্ষত্র সদৃশ বিলুপ্ত প্রায় মন্দির স্থাপনা, স্মৃতি স্থান ও তীর্থস্থান সমূহ ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করে সংরক্ষণ ও রক্ষণা-বেক্ষণ ও প্রসারের জন্য সরকারি বরাদ্দ নিশ্চিত করা, নন্দনকাননস্থ রাধামাধব মন্দির, লোকনাথ মন্দির ও বিদ্যালয়ের অর্পিত সম্পত্তি অবমুক্ত করা, হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্টকে হিন্দু ফাউন্ডেশনে রূপদান করা, রথযাত্রায় অংশগ্রহণকারী জনগণের ভোগ্য খাদ্যবস্তু সমূহ জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রদান করা, প্রত্যেক মঠ, মন্দির ও দেবোত্তর সম্পত্তি সমূহের নিশ্চিদ্র নিরাপত্তা প্রদান করার দাবি জানান।

 

সভায় ইস্কন মন্দিরের সভাপতি পন্ডিত গদাধর দাস ব্রহ্মচারী বলেন-সাংবাদিক সম্মেলনে আগামী ১৪ জুলাই থেকে ২২ জুলাই পর্যন্ত নন্দনকানন শ্রীশ্রী রাধামাধব মন্দির এবং ডিসি হিল প্রাঙ্গন থেকে বিভাগীয় কেন্দ্রীয় ইস্কনের তত্ত্বাবধানে চট্টগ্রাম ইসকন আয়োজিত ২১তম রথযাত্রা উৎসব আড়ম্বরভাবে উদযাপন করা হবে এবং ৯ দিনব্যাপী জে. এম সেন হলে ভাগবদ সপ্তাহ পালন হবে। প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও আগামী ১৪ জুলাই হতে ২২ জুলাই পর্যন্ত ৯ দিন ব্যাপি বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালা অনুষ্ঠিত হবে।

 

সাংবাদিক সম্মেলনে বলা হয়, পৃথিবীর দ্বিতীয় সর্ববৃহৎ মানুষের মিলনোৎসব হল রথযাত্রা উৎসব। রথযাত্রা উৎসবের উৎপত্তি ভারতের উড়িষ্যা রাজ্যের অন্তর্গত শ্রীজগন্নাথ পুরীধাম পুরীধামে বিরাজিত আছেন জগতের অধীশ্বর, পরম দয়ালু, জীবের পরম আশ্রয়দাতা পরমেশ্বর ভগবান জগন্নাথ। জগন্নাথদেবের বিভিন্ন বিস্ময়কর ও অদ্ভুতলীলা থেকে উপলদ্ধি করা যায় তিনি মন্দিরে স্বয়ং বিরাজিত। কলিযুগের অধঃপতিত ধর্মবিমুখ জীবদের যারা মন্দিরে যেতে সময় পায় না তাদের দর্শন দানের মাধ্যমে জগন্নাথদেব তার অহৈতুকী কৃপা বিতরণ করেন। রথযাত্রা হল পৃথিবীর একমাত্র উৎসব যেখানে ভগবান মন্দির থেকে বের হয়ে এসে রথে আরোহন করে নগর পরিক্রমা করেন। এই হল জগন্নাথদেবের মহিমা।

 

আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ (ইসকন) এর প্রতিষ্ঠাতা আচার্য্য জগৎগুরু শ্রীল প্রভুপাদের কল্যাণে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম প্রধান উৎসব জগতের নাথ জগন্নাথদেবের রথযাত্রা উৎসব আজ সারা বিশ্বের পায় ১২৭টি দেশের সব বড় বড় শহরে সারা বৎসরব্যাপী হাজার হাজার বিদেশী ধর্মপ্রাণ নরনারীর অংশগ্রহণে মহাসমারোহে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। যার মাধ্যমে এই বাংলার কৃষ্টি, প্রথা, সংস্কৃতি, ভাষা, ঐতিহ্য সারা বিশ্বের প্রতি নগরাদি গ্রামে প্রচারিত ও সুপ্রতিষ্ঠিত। স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব, গণতন্ত্র ও ধর্মনিরপেক্ষতার গর্ভভূমি এই দেশে ধর্মীয় উৎসবসমূহ যথাযোগ্য মর্যাদায় সবার অংশগ্রহণের উৎসবমুখর পরিবেশে উদযাপিত হওয়ার ফলশ্রুতিতে জঙ্গীবাদ, মৌলবাদ ও সর্বপ্রকার অশুভশক্তি শতবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠার চেষ্টা করেও বার বার দমিত হয়েছে। বর্তমান সরকার ধর্ম যার যার রাষ্ট্র সবার এর স্থলে ধর্ম যার যার উৎসব সবার সংযোজন করেছেন। সংখ্যালঘুদের উপর বার বার পরিকল্পিত হামলা সরকার গুরুত্বের সঙ্গে আমলে নিচ্ছে না। তাই প্রতিনিয়ত মঠ-মন্দিরে হামলা, গুম হত্যা ও ধর্ষন বেড়েছে। এসব গুপ্ত হত্যা করে দেশ থেকে সংখ্যালঘুদের বিতাড়িত করার একটা অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। সরকার যদি এসব হত্যকারীদের এবং মূল হোতাদের গ্রেপ্তারপূর্বক শাস্তি প্রদান না করে তাহলে দেশ অনেক দূর পিছিয়ে যাবে।

 

এতে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবসহ মত বিনিময় করেন চট্টগ্রাম ইস্কনের বিভাগীয় রিজিওন্যাল সেক্রেটারী চিন্ময় কৃষ্ণ দাস ব্রহ্মচারী ,পু-রীক বিদ্যানিধি স্মৃতি সংসদের সভাপতি প্রফুল্ল রঞ্জন সিংহ, কেন্দ্রীয় জন্মাষ্টমী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট চন্দন তালুকদার, চট্টগ্রাম মহানগর হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নিতাই প্রসাদ ঘোষ, কেন্দ্রীয় জন্মাষ্টমী পরিষদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট তপন কান্তি দাশ, বাংলাদেশ হিন্দু ফাউন্ডেশনের প্রাক্তন চেয়ারম্যান দিলীপ মজুমদার,ইসকন নন্দনকানন সাধারণ সম্পাদক তারণ নিতানন্দ দাস ব্রহ্মচারী, কেন্দ্রীয় জন্মাষ্টমী পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক প্রকৌশলী আশুতোষ দাশ, মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অরবিন্দ পাল অরুণ, চট্টগ্রাম বিভাগীয় গৃহস্থ কাউন্সিল সদস্য বলরাম করুনা দাস,গৌর পূর্ণিমা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুমন চৌধুরী। উক্ত সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ইস্কন ন্যাশনাল কমিটির সদস্য সর্বমঙ্গল গৌর দাস, যুগ্ম সম্পাদক মুকুন্দ ভক্তি দাস ব্রহ্মচারী, কোষাধ্যক্ষ সুবলসখা দাস ব্রহ্মচারী, শেষরূপ দাস ব্রহ্মচারী, অপূর্ব মনোহর দাস ব্রহ্মচারী, লীলেশ্বর গোবিন্দ দাস প্রমুখ।

রাইফা হত্যার বিচার দাবিতে কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের প্রতিবাদ সমাবেশ শুক্রবার

সিটিজি বাংলা, কক্সবাজার প্রতিনিধি:

 

চট্টগ্রাম বেসরকারি ম্যাক্স হাসপাতালে ভুল চিকিৎসা ও অবহেলায় সাংবাদিক রুবেল খানের আড়াই বছর বয়সী একমাত্র কন্যা রাইফার খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও হাসপাতালটি বন্ধের দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ ডাক দিয়েছে কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়ন।

 

৪ জুলাই বৃহস্পতিবার কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহের চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক জাহেদ সরওয়ার সোহেল এক বিবৃতিতে এ দাবি জানান।

এসময় সংগঠনের উদ্যোগে ৬ জুলাই শুক্রবারে বেলা ১১টায় কক্সবাজার প্রেস ক্লাবের সামনে রাইফা হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ ডাক দেয়।

 

তারা বলেন, ডাক্তার ও নার্সের ভুল এবং হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় একটি ফুটফুটে শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। যা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। এ খুনের শাস্তি না হলে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটতেই থাকবে।

 

চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের (সিইউজে) তিন দফা দাবির সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করে আবু তাহের চৌধুরী ও জাহেদ সরওয়ার সোহেল বলেন, ঢাকাসহ সারা দেশের সাংবাদিক সমাজ রাইফা খুনের ঘটনায় মর্মাহত।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। এ অবস্থায় কয়েকজন দোষীকে বাঁচাতে গিয়ে নানামুখী ষড়যন্ত্র করছে একটি চক্র। যা কোনোভাবেই কাম্য নয়।

মানববন্ধন সফল করায় চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেসক্লাব সভাপতি ও নির্বাহী সভাপতির অভিনন্দন

সিটিজি বাংলাঃ

চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেস ক্লাবের মানববন্ধন সফল করায় অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন সংগঠনটির সভাপতি রোটারিয়ান গোলাম আকবর চৌধরী ও নির্বাহী সভাপতি সুলাইমান মেহেদি হাসান। ৫ জুলাই বৃহস্পতিবার রাতে এক যৌথ বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, ম্যাক্স হাসপাতালের অপচিকিৎসায় সাংবাদিক কন্যা রাইফা খানকে হত্যার প্রতিবাদে চট্টগ্রাম আনলাইন প্রেসক্লাব কতৃক আয়োজিত আজকের মানববন্ধন সুন্দর ও সুশৃঙ্খলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। কতিপয় ডাক্তারদের দূর্বৃত্তপনা বন্ধে সংগঠনটির সকল নেতৃবৃন্দ, সদস্য ও উপস্থিত বিভিন্ন শ্রেণীপেশার ব্যক্তিবর্গের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। রাইফা হত্যার বিচার, ম্যাক্স হাসপাতাল বন্ধ ও কতিপয় ডাক্তারদের দূর্বৃত্তপনা রোধে রাজপথের এ আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেসক্লাবের এ অগ্রযাত্রায় অংশীদার সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।