চট্টগ্রামের পাঠকপ্রিয় অনলাইন

লাইফস্টাইল

গোসলের সময় মেয়েরা কি চিন্তা করে?

সিটিজি বাংলাঃ
কথায় বলে, মানুষ সবচেয়ে বেশি চিন্তা করে যখন বাথরুম বা ওয়াশরুমে যায়। কিন্তু মেয়েরা গোসলের সময় এমন অনেক কিছুই চিন্তা করে যার কোনো ভিত্তি নেই। জানতে চান কী সেগুলো? তাহলে আইডিভা ওয়েবসাইটের এই তালিকাটি একবার দেখে নিন।

১. আমি যদি একটু অনুশীলন করতাম তাহলে অনেক বড় শিল্পী হতাম! আসলে আমি অনেক ভালো গান গাই।

২. আজ কি চুল ধোয়ার প্রয়োজন আছে? থাক দরকার নেই। আরো দুদিন না করলেও চলবে।

৩. পানি অনেক গরম। গিজারটা বন্ধ করে দেওয়া উচিত। কিন্তু আমি তো ঠান্ডা পানি দিয়ে গোসল করতে পারি না।

৪. মাত্র দুই মিনিট আছে। এখন কি চুলে কন্ডিশনার লাগানো ঠিক হবে? এমনিতেই আমার দেরি হয়ে গেছে।

৫. ইদানীং চুল ধোয়ার সঙ্গে সঙ্গেই অনেক চুল পড়ে যাচ্ছে। কালই পার্লারে যেতে হবে।

৬. আমার ওয়েক্সিং করানো খুবই জরুরি। কিন্তু করাটা ঠিক হবে কি না বুঝছি না!

৭. আমি অনেক মোটা হয়ে যাচ্ছি। আমার ব্যায়াম করা প্রয়োজন।

৮. নতুন এই বডিওয়াশটার অনেক সুন্দর ঘ্রাণ। এখন থেকে এটাই কিনব।

৯. আজকে তোয়ালে ভেজা না তো? আমি ভেজা তোয়ালে দিয়ে শরীর মোছা একেবারেই পছন্দ করি না।

১০. পুরো বাথরুম ভিজে আছে। ভেজা বাথরুমে গোসল করতে আমার অস্বস্তি লাগে।

সিটি ব্যাংকে কাজের সুযোগ

সিটিজি বাংলাঃ
সিটি ব্যাংক লিমিটেড নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। অফিসার, কাস্টমার সার্ভিস পদে এই নিয়োগ দেওয়া হবে।

যোগ্যতা

চার বছর মেয়াদি স্নাতক পাস করা প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে এক বছরের কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। নির্বাচিত প্রার্থীদের ঢাকায় নিয়োগ দেওয়া হবে।

আবেদন প্রক্রিয়া

আগ্রহী প্রার্থীরা অনলাইনে বিডিজবস ডটকমের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের সময়সীমা

১০ অক্টোবর-২০১৮ পর্যন্ত আবেদন করা যাবে।

সূত্র : বিডিজবস

এইচএসসি পাশেই নিয়োগ দেবে সোহাগ গ্রুপ

সিটিজি বাংলাঃ

সোহাগ গ্রুপ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। প্রতিষ্ঠানটি বিজনেস ডেভেলপমেন্ট অফিসার (লুব্রিক্যান্ট) পদে নিয়োগ দেবে। তবে কতজনকে নিয়োগ দেওয়া হবে, সেটি উল্লেখ করা হয়নি।

পদের নাম

বিজনেস ডেভেলপমেন্ট অফিসার (লুব্রিক্যান্ট)

যোগ্যতা

প্রার্থীকে ন্যূনতম এইচএসসি পাস হতে হবে। সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে কমপক্ষে এক বছরের কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। চাকরির বয়সসীমা ১৮ থেকে ৩২ বছর। পদটিতে শুধু পুরুষ প্রার্থীরাই আবেদন করতে পারবেন। নির্বাচিত প্রার্থীদের বাংলাদেশের যেকোনো জায়গায় নিয়োগ দেওয়া হবে।

বেতন

১০ হাজার টাকা। এ ছাড়া কোম্পানি থেকে টিএ/ডিএ ও মোবাইলফোন বিল প্রদান করা হবে।

আবেদন প্রক্রিয়া

আগ্রহী প্রার্থীদের জীবনবৃত্তান্তসহ অন্যান্য কাগজপত্র ‘৬৩, মালিবাগ ডিআইটি রোড, ঢাকা-১২১৭’ এই ঠিকানায় পাঠাতে হবে।

আবেদনের সময়সীমা

আগামী ৯ অক্টোবর, ২০১৮ পর্যন্ত আবেদন করা যাবে।

সূত্র : জাগোজবস ডটকম

পাঁচ ব্যাংকে ৭৬৭ অফিসার নিয়োগ

সিটিজি বাংলাঃ

কর্মকর্তা (ক্যাশ) পদে ৭৬৭ জন লোক চেয়ে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি সচিবালয়। সোনালী ব্যাংক, রূপালী ব্যাংক, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক, বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক ও প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকে এসব নিয়োগ দেওয়া হবে।

অনলাইনে আবেদন করা যাবে ৫ আগস্ট পর্যন্ত।

কর্মকর্তা (ক্যাশ) পদে সোনালী ব্যাংকে ২৪৪ জন, রূপালী ব্যাংকে ১৯৭ জন, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকে ৩১৯ জন, বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকে ৪ জন ও প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকে ৩ জন নিয়োগ দেবে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি সচিবালয়। বিজ্ঞপ্তিটি ছাপা হয়েছে ১৪ জুলাই বাংলাদেশ প্রতিদিনে ও ১৮ জুলাই প্রথম আলোয়। বিজ্ঞপ্তিটি পাওয়া যাবে বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটে (erecruitment.bb.org.bd) এবং https://erecruitment.bb.org.bd/onlineapp/openpdf.php I bit.ly/2aRABTV লিংকে।

আবেদনের যোগ্যতা

যেকোনো বিষয়ে স্নাতকোত্তর বা চার বছর মেয়াদি স্নাতক বা স্নাতক (সম্মান) হলে আবেদন করা যাবে। মাধ্যমিক ও তদূর্ধ্ব পর্যায়ে যেকোনো একটিতে প্রথম বিভাগ বা শ্রেণি থাকতে হবে। কোনো পর্যায়ে তৃতীয় বিভাগ বা শ্রেণি থাকা চলবে না। এসএসসি ও এইচএসসি পর্যায়ে গ্রেডিং পদ্ধতিতে প্রকাশিত ফলের ক্ষেত্রে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৩.০০ বা তার বেশি প্রথম বিভাগ, জিপিএ ২.০০ বা তার বেশি কিন্তু ৩.০০-এর কম দ্বিতীয় বিভাগ ধরা হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে ৪ পয়েন্ট স্কেলে সিজিপিএ ৩.০০ বা বেশি হলে প্রথম বিভাগ বা শ্রেণি, ২.২৫ বা তার বেশি কিন্তু ৩.০০-এর কম দ্বিতীয় বিভাগ বা শ্রেণি ধরা হবে।

১ এপ্রিল ২০১৮ তারিখে বয়স হতে হবে অনূর্ধ্ব ৩০ বছর। তবে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রতিবন্ধীদের বেলায় বয়সসীমা ৩২ বছর।

আবেদন যেভাবে

বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটের (https://erecruitment.bb.org.bd/onlineapp/apply_job.php) মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। আবেদন করার আগে লিংকটিতে প্রবেশ করে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। কোনো আবেদন ফি লাগবে না। শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ অনুসারে নাম, পিতা ও মাতার নাম লিখতে হবে। ৬০০ বাই ৬০০ পিক্সেল ও সর্বোচ্চ ৮০ কিলোবাইটের ছবি এবং ৩০০ বাই ৬০ পিক্সেল ও সর্বোচ্চ ৬০ কিলোবাইটের স্বাক্ষর স্ক্যান করে আপলোড করতে হবে। আবেদন চূড়ান্ত সাবমিট করার পর ট্র্যাকিং নম্বর যুক্ত ফরমটি সংরক্ষণ করতে হবে। আবেদনের সময় কোনো কাগজপত্র লাগবে না। তবে মৌখিক পরীক্ষার সময় লাগবে শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ, জাতীয়তার সনদ, নাগরিকত্ব সনদ, চারিত্রিক সনদের সত্যায়িত এক কপি ফটোকপি।

পরীক্ষার ধরন

বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক ও ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির সদস্যসচিব মো. মোশাররফ হোসেন খান জানান, প্রথমে ১০০ নম্বরের এমসিকিউ হবে। পরে দিতে হবে ২০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা। এমসিকিউর জন্য এক ঘণ্টা ও লিখিত পরীক্ষার জন্য সময় দুই ঘণ্টা। এমসিকিউ পরীক্ষায় বাংলা, ইংরেজি, গণিত, সাধারণ জ্ঞান, তথ্য-প্রযুক্তি, অ্যানালিটিক্যাল অ্যাবিলিটি বিষয়ে প্রশ্ন হয়ে থাকে।

লিখিত পরীক্ষায় বাংলা, ইংরেজি, গণিতে থাকে ১৫০ নম্বর। বাকি ৫০ নম্বর বরাদ্দ থাকে ইংরেজি থেকে বাংলা ও বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদে। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে মৌখিক পরীক্ষার জন্য ডাকা হবে। এতে বরাদ্দ ২৫ নম্বর।

পরীক্ষা পদ্ধতি

বাংলা, ইংরেজি, গণিত, সাধারণ জ্ঞান, তথ্য-প্রযুক্তি, অ্যানালিটিক্যাল অ্যাবিলিটি—প্রতিটি বিষয়ে সমান গুরুত্ব দিতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের যুগ্ম পরিচালক শাহরিয়ার আহমেদ তুষার জানান, ৬০ মিনিটে ১০০টি প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। না জেনে প্রশ্নের উত্তর দেওয়া যাবে না। প্রস্তুতি-সহায়ক অনেক বই পাওয়া যায় বাজারে। এসব বই থেকে প্রস্তুতি নিতে পারেন।

তিনি আরো জানান, লিখিত পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির পাঠ্য বইয়ের সিলেবাস অনুসারে পড়াশোনা করতে হবে। এমবিএ ও বিবিএর বই থেকে অ্যানালিটিক্যাল অ্যাবিলিটির প্রশ্ন সমাধান করতে পারেন। এ ছাড়া ইংরেজি ভার্সনের গণিত বইয়ের অনুশীলনী দেখতে হবে। সাধারণ জ্ঞানে দেশে ও বিদেশে এক বছরের আলোচিত ঘটনা জানতে হবে। সাম্প্রতিক বিষয়াবলিও খুব ভালোভাবে জানতে হবে।

ইংরেজির জন্য চৌধুরী অ্যান্ড হোসেনের গ্রামার বইটি অনুসরণ করতে পারেন। সঙ্গে পড়তে পারেন আরো একটি ভালো মানের গ্রামার বই।

সোনালী ব্যাংকের চুয়াডাঙ্গা শাখার অফিসার মাহফুজুর রহমান জানান, ক্যাশ অফিসার পদের পরীক্ষায় সাধারণত বাংলা ও ইংরেজি বিষয়ে মৌলিক প্রশ্ন হয়। বেশির ভাগ প্রশ্নই করা হয় পাঠ্য বই থেকে। পঞ্চম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির বাংলা ও ইংরেজি পাঠ্য বই থেকেই প্রশ্ন থাকে। সাধারণ জ্ঞান বা অ্যানালিটিক্যাল অ্যাবিলিটির জন্য বেশ কিছু বই পাওয়া যায়। এসব বই থেকে চর্চা করতে হবে।

সাধারণ জ্ঞানে মুক্তিযুদ্ধ, দেশভাগ, ছয় দফা এবং চলতি সময়ের আলোচিত বিষয়াবলি যেমন—স্যাটেলাইট উেক্ষপণ, উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়া সম্পর্কে প্রশ্ন থাকতে পারে।

সাধারণত সাম্প্রতিক সময়ের আলোচিত বিষয়ের ওপরই অনুবাদ করতে দেওয়া হয়। বাক্যের মূল ভাবের পরিবর্তন না করে ইংরেজি থেকে বাংলা অথবা বাংলা থেকে ইংরেজিতে অনুবাদ করতে হবে।

মৌখিক পরীক্ষা

এমসিকিউ ও লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেই মিলবে মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ। পঠিত বিষয়, জেলা ও আগের চাকরিসম্পর্কিত প্রশ্ন করা হতে পারে। আর্থিক প্রতিষ্ঠান, মুদ্রানীতি, পুঁজিবাজার, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, চলতি বছরের বাজেট বিষয়ে জানতে চাওয়া হতে পারে। সঙ্গে দেখা হতে পারে বিচার-বিশ্লেষণের ক্ষমতা, উপস্থিত বুদ্ধিমত্তা, যোগাযোগের দক্ষতা, নেতৃত্বদানের ক্ষমতা।

বেতন ও সুযোগ-সুবিধা

জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ অনুযায়ী ১৬০০০-৩৮৬৪০ টাকা স্কেলে বেতন দেওয়া হবে। সঙ্গে সরকারি নিয়ম অনুসারে পাওয়া যাবে নানা সুযোগ-সুবিধা। সূত্রঃ কালের কণ্ঠ

বিশ্বের সবচেয়ে দামী গাড়ি, কি আছে এর ভেতরে?

সিটিজি বাংলাঃ

বিশ্বের সবচেয়ে দামি গাড়ির ভেতরটা দেখতে কেমন? কি আছে এতে
দামি গাড়ি অনেকেরই শখ। কেউ বেছে নেন ল্যাম্বরগিনি তো কেউ বেন্টলে। কোনোটার দাম তিন কোটি তো কোনোটা চার কোটির কাছাকাছি। তবে কার্লমান কিং-এর ধারে-কাছে নেই কেউ। এটাই বিশ্বের সবথেকে দামি গাড়ি।

গত বছর দুবাই ইন্টারন্যাশনাল শো’তে প্রকাশ্যে আসে ওই গাড়ি। সবথেকে মূল্যবান এই গাড়ির দাম ২.২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। অর্থাৎ আন্তর্জাতিক বাজারে এর দাম পড়বে প্রায় ১৪ কোটি ২৭ লাখ টাকা। আর ভারতে এর দাম পড়বে এর দ্বিগুণ।

এই গাড়ির ডিজাইন তৈরি করেছে চিনের অটোমোটিভ ফার্ম। ইউরোপে ১ হাজার ৮০০ জনের একটি টিম এই গাড়ি তৈরি করেছে। গাড়িটি যেন কল্পবিজ্ঞান থেকে উঠে আসা একটা যান, এতটাই আধুনিক। গাড়িটি অনেকটা মিলিটারি গাড়ির মত দেখতে। গাড়িটিকে চাইলে সাঁজোয়ার মত তৈরিও করা যায়। যাতে দাম হয়ে যাবে ২২.৭ কোটি টাকা।

এই গাড়ির ওজন ৪.৫ টন। অস্ত্রে সাজানো হলে ওজন হয়ে যাবে ৬টন। এই গাড়িতে রয়েছে এইচডি ৪কে টিভি সেট, হাই-ফাই সাউন্ড, ফোন প্রোজেকশন সিস্টেম, ফ্রিজ, কফি মেশিন, ইলেকট্রিক টেবিল, এসিসহ বিলাসব্যসনের সব উপকরণ।

যৌবনের যে ভুলগুলোর জন্য মারাত্মক খেসারত দিতে হয়

সিটিজি বাংলাঃ

কথায় বলে, ভুল করলে তার খেসারত দিতেই হয়। শাস্ত্র অনুসারে, যৌবনে কোনো ভুল করলে তার ফল বহুদিন ধরে ভুগতে হয়। আসুন, জেনে নেই সেগুলো কী ধরনের ভুল?

নিজের স্বাস্থ্যের দিকে নজর না দেওয়া : স্বাস্থ্যের থেকে মূল্যবান আর কিছুই হয় না। কাজেই নিজের স্বাস্থ্যের প্রতি যত্নবান হতে হবে অল্প বয়স থেকেই। নতুবা অসুস্থতায় জর্জরিত এবং অসুখী বার্ধক্য কাটাতে হবে।

অর্থ সঞ্চয়ে যত্নবান না হওয়া : টাকা-পয়সা পার্থিব সুখ অর্জনের অন্যতম মাধ্যম। এবং উপার্জনের সূচনা যেহেতু যৌবনে, সেহেতু টাকা জমানোর ব্যাপারেও যৌবনেই সতর্ক হতে হবে। অর্থ সঞ্চয়ের অভ্যাস ভবিষ্যতের সুখকে অনেকখানি সুনিশ্চিত করে।

দেশ পরিভ্রমণে বিরত থাকা : নতুন নতুন দেশ দেখে বেড়ানোর অভ্যাসের মাধ্যমে অভিজ্ঞতার পরিধি বাড়ানো যায়। কিন্তু পরিভ্রমণের জন্য শারীরিক সক্ষমতারও প্রয়োজন রয়েছে। কাজেই শাস্ত্রমতে যৌবনই দেশ পরিভ্রমণের উপযুক্ত সময়।

চেনা গণ্ডির বাইরে যেতে না পারা : অচেনাকে চেনার মাধ্যমেই বেড়ে ওঠে একজন মানুষের মানসিক পরিধি। কাজেই নিজের ছকে বাঁধা জীবনের বাইরে গিয়ে একেবারে নতুন ধরনের কিছু করার কথা ভাবুন। নতুন ভাবে চিনুন জীবনকে, এবং সেটা করুন যৌবনেই।

সমাজের তৈরি করে দেওয়া পরিচিতির বাইরে যেতে না পারা: ‘তুমি মেয়ে, তাই অমুক কাজ করা তোমার করা উচিৎ নয়’, ‘তুমি ছেলে, তাই তমুক কাজ করা তোমার শোভা পায় না’ এ ধরনের নির্দেশিকার মাধ্যমে প্রতি মুহূর্তে সমাজ আমাদের একটা চেনা পরিচিতির মধ্যে বেঁধে দিতে চায়। যৌবনেই এই পরিচিতিকে ভাঙা প্রয়োজন।

আত্মকেন্দ্রিক জীবনযাপন করা : কেবল নিজেকে নিয়ে ব্যস্ত থাকা কোনও সামাজিক সত্তারই আদর্শ বৈশিষ্ট্য হতে পারে না। অল্প বয়স থেকেই নিজের আশেপাশের মানুষজন সম্পর্কে সচেতন হতে শিখুন, অন্যদের কথা ভাবতে শিখুন। নতুবা বার্ধক্যে আপনাকে একা হয়ে যেতে হবে।

২০১৮ এপ্রিলে বিয়ে করছেন নাবিলা

বিনোদন ডেস্ক: বছরের শেষ দিনে বোমা ফাটালেন নাবিলা। ২০১৮ সালের এপ্রিলে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হতে যাচ্ছেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী।
নাবিলার জন্ম সৌদি আরবে। বাবার চাকরি সূত্রে তার কৈশোরের আনন্দময় দিনগুলো কেটেছে জেদ্দা শহরে।

নাবিলার বর জোবাইদুল হকের কৈশোরের সময় কেটেছে জেদ্দায়। দেশে ফিরে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা শেষে এখন একটি বেসরকারি ব্যাংকে কর্মরত আছেন তিনি।
বিয়ে প্রসঙ্গে ‘আয়নাবাজি’খ্যাত এই তারকা জানান, ‘আমরা যখন জেদ্দায় থাকতাম, পরিবার নিয়ে ওরা সেখানে থাকতো। আমরা একই স্কুলে পড়তাম। তখন থেকে তার প্রতি ভালো লাগা কাজ করেছে। ও আমার জীবনের প্রথম প্রেম। ১৮ বছর আগে যাকে ভালো লেগেছিলো, কল্পনাও করিনি, এতোদিন পর তাকেই বিয়ে করবো। পরিবার থেকে আলোচনা চূড়ান্ত হয়েছে। এখন বিয়ের অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি চলছে।’

১১ সন্তানের মা হতে চান প্রিয়াঙ্কা!

 

 

 

 

 

বিনোদন ডেস্ক: পারলে এখনই বিয়ে করে নিতে চান আর ক্রিকেট টিমের সমান তথা ১১ সন্তানও চান এমন কথা জানিয়েছেন জি সিনে অ্যাওয়ার্ডসের মঞ্চে পারফর্ম করা ভারতীয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া।
দিল্লির এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানিয়েছেন। যেখানে বক্তা হিসেবে শামিল হয়েছিলেন নায়িকা।
এমনিতে বিয়ে সম্পর্কে প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে যেতেই পছন্দ করেন প্রিয়াঙ্কা। তবে এবার তিনি মুখ খুলেছেন। আর জানালেন নিজের মনের কথা।
প্রিয়াঙ্কা বলেন, মা বলেছেন এমন পুরুষকে বিয়ে করতে যিনি তার এতদিন পর্যন্ত করে আসা পরিশ্রমের মূল্য দেবেন। এখন তার যে ব্যস্ত জীবন সেটা বুঝবেন। কিন্তু এমন মানুষ পাওয়া বেশ কষ্টসাধ্য ব্যাপার। আর সেটাই প্রধান সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। অবশ্য শোনা গিয়েছে, প্রিয়াঙ্কার মা মধু চোপড়া নাকি মেয়ের বিয়ে নিয়ে বেশ আশাবাদী। তবে অবশ্যই মেয়ের স্বাধীনতাতেও তিনি হস্তক্ষেপ করতে চান না তিনি।
প্রিয়াঙ্কার ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন ,একের পর এক অ্যাওয়ার্ড নিজের করে নিচ্ছেন ভারতীয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। এইতো কদিন আগে পেয়েছেন মাদার টেরেসা স্মৃতি পুরস্কার। আগেই জিতেছেন জি সিনে অ্যাওয়ার্ডস। এবার তিনি প্রথমবারের মতো পেতে যাচ্ছেন ডক্টরেট ডিগ্রি। প্রিয়াঙ্কাকে ডক্টরেট ডিগ্রি দিচ্ছে তার নিজ এলাকা উত্তর প্রদেশের বরেলি আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়।
এদিকে, চলতি বছর বিশ্বের ক্ষমতাধর ১০০ নারীর তালিকায় ঠাঁই পেয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। মার্কিন প্রভাবশালী সাময়িকী ফোর্বসের ক্ষমতাধর নারীর তালিকায় প্রিয়াঙ্কার স্থান ৯৭। শত নারীর মধ্যে পিছিয়ে থাকলেও ফোবর্সের বিশেষ ক্যাটাগরিতে এগিয়ে রয়েছেন তিনি। তা হলো বিনোদন এবং মিডিয়া জগতের শীর্ষ ১৫ জনের তালিকায় প্রিয়াঙ্কার নাম উঠে এসেছে। রাজনীতি, ব্যবসা-বাণিজ্য, প্রযুক্তি ও মানবসেবার মতো বিভিন্ন ক্ষেত্রে নেতৃত্বের আসনে থাকা বিশ্বের ২৯টি দেশ থেকে ১০০ ক্ষমতাধর নারীর এ তালিকা তৈরি করেছে ফোর্বস।
আর এবার সাম্মান সূচক ডক্টরেট ডিগ্রি পেলেন তিনি। তাকে এ ডিগ্রি দিয়েছে ভারতের উত্তর প্রদেশে অবস্থিত বেরেলি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি।
চলতি বছরের শুরুর দিকে এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন, ফের কলেজে ফিরে পছন্দের একটি বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি নিতে চান এ অভিনেত্রী। তার সে ইচ্ছে পূরণ হল এবার।
রবিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ডা. কেশব কুমারও তাকে সম্মাননা দেন। বর্তমানে ইউনিসেফের গুডউইল অ্যাম্বাসেডর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন প্রিয়াঙ্কা। এছাড়া বিভিন্ন জনহিতৈষী কাজের সঙ্গে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন। লাখো নারীর অনুপ্রেরণা তিনি। এ জন্যই তাকে এ সম্মাননা প্রদান করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

ফিটনেস ধরে রাখতে যা খাবেন

লাইফস্টাইল ডেস্ক : আসছে শীতের মৌসুম। এই সময়কে আমাদের দেশে বিয়ের মৌসুমও বলা হয়। কারণ বছরের শেষ সময় বলে ছুটি মেলে সহজেই। এই সুযোগকে কাজে লাগাতেই বিয়ের পিঁড়িতে বসেন বর-কনে। বিয়ে নিয়ে সব মেয়ের মধ্যেই অন্যরকম ভালোলাগা কাজ করে। সেই সঙ্গে ভয়, নানা উৎকণ্ঠা তো রয়েছেই। সব মেয়েরই নানা স্বপ্ন থাকে এই দিনকে ঘিরে। নিজেকে সবচেয়ে সুন্দর করে সাজানোর দিনও এটি। সেজন্য সবার আগে থাকা চাই সুস্থতা। ধরে রাখা চাই ফিটনেস। খাবারে আনা চাই নিয়ন্ত্রণ। জেনে নিন এমনই কিছু বিষয় যা মেনে চললে সহজেই মিলবে আপনার কাঙ্ক্ষিত লুক। বিয়ের সাজে আপনি হয়ে উঠবেন অনন্যা।

দুগ্ধজাত খাবার এড়িয়ে চলুন
দুগ্ধজাত খাবার যেমন দুধ, চিজ, মাখন ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন কারণ এগুলো হজমে অনেক বেশি সময় নেয়। এই ফ্যাটযুক্ত খাবার হজমে সমস্যা করতে পারে, এমনকি গ্যাস্ট্রিকও হতে পারে এর কারণে। বিয়ের দিনটিতে এসব সমস্যায় না পড়তে চাইলে বিয়ের ঠিক কদিন আগে থেকেই এই খাবারগুলো এড়িয়ে চলুন।

প্রচুর পানি পান করুন
পানি আমাদের শরীরের জন্য সবচেয়ে উপকারী। কারণ এটি আমাদের শরীরের ভেতরকার ক্ষতিকর পদার্থসমূহ বের করে দেয়। এটি হচ্ছে ক্যালরিমুক্ত, ফ্যাটমুক্ত পানীয় যা আপনার শরীরের অতিরিক্ত চর্বি কাটাতে সাহায্য করবে। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, পানি আমাদের সঠিক বিপাকক্রিয়ায় সাহায্য করে।

অতিরিক্ত চর্বি এবং মিষ্টি এড়িয়ে চলুন
কী খাচ্ছেন? একটু খেয়াল রাখুন প্রতিদিনের খাবার তালিকায়। কারণ আপনার প্রতিদিনের খাবারই মূল ভূমিকা রাখে ওজন বৃদ্ধি কিংবা কমার ক্ষেত্রে। যদি চান ওজন না বাড়ুক, তাহলে অতিরিক্ত চর্বি এবং মিষ্টিজাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন।

একটু পরপর খান
একটু পরপর খাবার খেলে তা আপনার হজমের জন্য সহায়ক হবে। সঠিক বিপাকক্রিয়ার অর্থ হচ্ছে আপনার শরীরে নিয়মিত পর্যাপ্ত ক্যালরি ক্ষয় হচ্ছে। তাই সঠিক ওজন পেতে চাইলে অন্তত দুই থেকে তিন ঘণ্টা পরপর কিছু খাওয়ার চেষ্টা করুন।

দোকানে হোঁচট খেয়ে ৬৩ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ প্রাপ্তি!

সিটিজি বাংলাঃ

হেনরি ওয়াকার। যুক্তরাষ্ট্রের আলবামা অঙ্গরাজ্যের ফেনিক্স শহরের বাসিন্দা।

২০১৫ সালে শহরে বিশ্বের সর্ববৃহৎ খুচরা পণ্য বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান ওয়ালমার্টের একটি শো রুমে তরমুজ কিনতে গিয়ে দরজার সামনে হোঁচট খান। তারপর তার নিতম্বের হাড় ভেঙে যায়। পরবর্তীতে তিনি এ নিয়ে ওয়ালমার্টের বিরুদ্ধে ক্ষতিপূরণ চেয়ে মামলা দায়ের করেন।

ওয়াকার ওয়ালমার্টের বিরুদ্ধে অবহেলা এবং অমনযোগিতার অভিযোগ এনে মামলা করেন।
ওয়াকার আদালতে জানান, যখন তিনি বিক্রয়কেন্দ্রের অভ্যন্তরে তরমুজ কেনার জন্য নির্ধারিত স্থানে যাচ্ছিলেন। তখন ফ্লোরে কাঠের তৈরি একটি প্রতিবন্ধকে হোঁচট খেয়ে পড়ে যান। যার কারণে তার নিতম্বে চিড় দেখা দেয়।

ওয়াকারের আইনজীবী শন ও’ হারা জানান, বিচারকরা বিক্রয়কেন্দ্রটির ক্যামেরায় ধারণ করা ফুটেজে দেখেছেন ওয়াকার যে জায়গায় হোঁচট খেয়েছেন সেখানে এর আগেও অনেকে একই ধরণের পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছেন। যা বিচারের ক্ষেত্রে অনেকটা সহযোগিতা করেছে।

সম্পূর্ণ বিচার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পর বিচারক ওয়াকারকে ৭৫ লাখ মার্কিন ডলার (প্রায় ৬৩ কোটি টাকা) দেওয়ার নির্দেশ দেন। তিনি শারিরীক আঘাতের ক্ষতিপূরণ হিসেবে পাবেন ২৫ লাখ ডলার। একই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানকে করা ৫০ লাখ ডলার শাস্তিমূলক জরিমানাও পাবেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, ওয়াকার একজন উর্ধ্বতন সেনা কর্মকর্তা। তিনি প্রতি সপ্তাহে বন্ধুদের সঙ্গে অন্তত তিনবার করে বাস্কেটবল খেলতেন দুর্ঘটনাটি ঘটার আগেও। কিন্তু  এখন তাকে ক্রাচে ভর দিয়ে চলাফেরা করতে হয়।

ওয়ালমার্টের একজন প্রতিনিধি বলেন, ‘আমরা এ রায় নিয়ে আসলেই হতাশ। যদিও বিচারকদের এ সিদ্ধান্তকে আমরা সম্মান জানাচ্ছি। তবে এ জরিমানার পরিমাণ অনেক বেশি। আমরা আপিলের প্রস্তুতি নিচ্ছি। ’